মাদ্রিদে উন্নয়ন মেলা অনুষ্ঠিত

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:১৬ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৮

স্পেনের মাদ্রিদে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে চতুর্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ‘উন্নয়নের অভিযাত্রায় অদম্য বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে গত মঙ্গলবার মাদ্রিদে বাংলাদেশ দূতাবাসের হলরুমে উৎসবমুখর পরিবেশে এ মেলা অনুষ্ঠিত হয়।

দিনব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করেন স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার।

মেলায় বর্তমান সরকারের অর্জিত উন্নয়ন ও সাফল্য সম্পর্কে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ অতিথিদের অবহিত করা হয়।

আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের এগিয়ে চলার একটি রূপরেখা তুলে ধরে রাষ্ট্রদূত বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়নে আজ বিশ্বে রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। বিদ্যুৎ, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ ও ডিজিটাল বাংলাদেশসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জিত হয়েছে। তিনি প্রবাসীদের পাঠানো অর্থ দেশের উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে উল্লেখ করে তাদের বিশেষ ধন্যবাদ জানান।

উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে দূতাবাসের হলরুমে আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের উপর একটি ভিডিওচিত্র প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া বাংলাদেশের উন্নয়নের উপর দৃষ্টিনন্দন ব্যানার ও পোস্টার ছাড়াও ঐতিহ্যবাহী দেশীয় সামগ্রী দিয়ে হলরুম চমৎকারভাবে সজ্জিত করা হয়। পোস্টারে সরকারের শিক্ষা, কৃষি, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, বিদ্যুৎ, নারীর ক্ষমতায়ন, অবকাঠামো, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি, তৈরি পোশাক শিল্প, পাট, রফতানি ও রেমিটেন্সসহ এমডিজিতে বাংলাদেশের সাফল্যের চিত্র তুলে ধরা হয়।

আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের পাশাপাশি কূটনৈতিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অর্জন, বহির্বিশ্বে বলিষ্ঠ ভূমিকাসহ গতিশীল পররাষ্ট্রনীতিও উপস্থাপন করা হয়।

উন্নয়ন মেলায় প্রবাসী বাংলাদেশি ছাড়াও বাংলাদেশে নিযুক্ত সাবেক স্প্যানিশ রাষ্ট্রদূত এদুয়ার্দো দে লা ইগ্লেসিয়া, বিদেশি কূটনীতিক, স্প্যানিশ ব্যাবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধি, সান পাবলো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আন্তোনিও আলোনসোসহ বিদ্যালয়ের বেশ কয়েকজন স্প্যানিশ শিক্ষার্থী ছাড়াও দূতাবাস কর্মকর্তাদের মধ্যে মিনিস্টার ও হেড অব চ্যান্সারি হারুন আল রশিদ, প্রথম সচিব (শ্রম) মো. শরিফুল ইসলামসহ সব কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন সম্পর্কে বিদেশি কূটনৈতিক, স্পেনিশ ব্যবসায়ী, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের অবহিত করেন দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর মোহাম্মদ নাভিদ শফিউল্লাহ।

এএইচ/আরআইপি

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :