মিশিগান বেঙ্গলসের জাঁকজমকপূর্ণ টেবিল টেনিস টুর্নামেন্ট

সাইফুল আজম সিদ্দিকী সাইফুল আজম সিদ্দিকী
প্রকাশিত: ১০:৪৩ পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগানে ‘মিশিগান বেঙ্গলস’-এর আয়োজনে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হলো মিশিগান বেঙ্গলস কাপ টেবিল টেনিস টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টে সিঙ্গেলসে মারুফ মনোয়ার জয় এবং ডাবলসে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন মারুফ মনোয়ার জয় ও সালাহউদ্দিন আজিজ।

বেঙ্গলস কাপ টেবিল টেনিসে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার প্রবাসী বাংলাদেশি অর্ধশতাধিক খেলোয়াড় অংশ নেন। এ টুর্নামেন্টে উপস্থিত ছিলেন ইউক্রেন ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন ডেভিড কেলসচিক। টুর্নামেন্টের আয়োজনে ছিল মিশিগানে বাংলাদেশিদের স্পোর্টস সংগঠন ‘মিশিগান বেঙ্গলস’।

চলতি মাসের ১৬ তারিখে ফারমিংটন হিল্লস টেবিল টেনিস সেন্টারে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের এককে ৪০ জন এবং ডাবলসে ২০ দল অংশ নেয়। টুর্নামেন্ট নিয়ে মিশিগানে বসবাসরত বাংলাদেশিদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা যায়।

একক শাখায় আট গ্রুপে রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে প্রতি গ্রুপ থেকে শীর্ষ দুইজন সুপার সিক্সটিনে ওঠে। দ্বিতীয় পর্বের সুপার সিক্সটিন থেকে নকআউট পদ্ধতিতে কোয়াটার ফাইনাল ও সেমি ফাইনাল ও ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি হন মোহাম্মদ শাহীন ইসলাম ও মারুফ মনোয়ার জয়, দ্বিতীয় সেমিফাইনালে খেলেন গোলাম মোস্তফা ও মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইন।

প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনালে মুখোমুখি হন মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইন ও মারুফ মনোয়ার জয়। মারুফ মনোয়ার জয় মিশিগান বেঙ্গলস কাপ-২০১৯ এর চ্যাম্পিয়ন খেতাব লাভ করেন।

ডাবলসে চারটি গ্রুপে রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে প্রতি গ্রুপ থেকে শীর্ষ দুইজন সরাসরি কোয়াটার ফাইনালে ওঠে। এরপর কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমি ফাইনাল ও ফাইনাল খেলা হয়। প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি হন মোহাম্মদ শাহীন ইসলাম-মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইনের ‘ডাবল ট্রাবল’ ও সাইফ সিদ্দিকী ও নাজমুল আনোয়ারের ‘টিম এসি-ডিসি’, দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অংশ নেয় মারুফ মনোয়ার জয় ও সালাহউদ্দিন আজিজের ‘মিশিগান বেঙ্গলস’ ও ফয়সাল সাইদ ও ফরিদ চৌধুরীর ‘শীরোনামহীন’।

s

শ্বাসরুদ্ধকর সেমি ফাইনাল ও ফাইনাল খেলায় প্রচুর দর্শক সমাগম ঘটে। ফাইনালে মোহাম্মদ শাহীন ইসলাম-মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইনের ‘ডাবল ট্রাবল’ ও মারুফ মনোয়ার জয় ও সালাহউদ্দিন আজিজের ‘মিশিগান বেঙ্গলস’। ট্রফি উঠে টিম ‘মিশিগান বেঙ্গলস’ এর হাতে।

টুর্নামেন্টে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা- দুই দেশে বসবাস করা অর্ধশতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি খেলোয়াড় অংশ নেন। মিশিগানের নোভাই, নর্থভিল, এন আরবার, ট্রয় ও রচেস্টার, স্যাগিনো, স্টারলিং হাইটস, ডিয়ারবরন ও ওহাইয়ো অঙ্গরাজ্যের টলেডো, কানাডার উইন্ডসর শহরের সমাবেশ ঘটে এ টুর্নামেন্টে। অনেকে পুরো পরিবার নিয়ে হাজির হন খেলা দেখতে এবং অংশ নিতে।

ডাবলসে অংশগ্রহণকারী দলগুলো হচ্ছে- মোহাম্মদ শাহীন ইসলাম ও আলমগীর হোসাইনের ডাবল ট্রাবল, মোহাম্মদ নাজমুল আনোয়ার ও সাইফ সিদ্দিকীর এসি-ডিসি, ফরিদ চৌধুরী ও ফয়সাল সাইদের শিরোনামহীন, সালাহউদ্দিন আজিজ ও মারুফ মনোয়ার জয়ের মিশিগান বেঙ্গলস, আসিফ ইকবাল ও আরিফ মোরশেদের হ্যাব্বি জোস, আবির হাসান ও গোলাম তানভীর, গোলাম মোস্তফা ও রায়ান মোস্তফার মিশিগান ওরিয়রস, আবিদ রহমান ও আনোয়ারের বিএনপি, বাশার ভুঁইয়া ও খোরশেদ আলমের সর্ট সার্কিট, শরত দাস ও মাহমুদ সালাম, তায়েফ রহমান ও আব্দুর রাহমান সোহেল, জাকির হোসেন ও আরুপ বড়ুয়ার চট্রগ্রাম ভাইকিংস, চন্দ্র নাথ ও মোহাম্মদ মাইনুলের কুল বয়েজ, ফাহিম আহমেদ ও সাইফ খান এলেনের মিনিওন্স, রোকন রুমি ও নাঈম মাহমুদ, মারুফ কুতুব ও ইফতেখার হাসানের হাই পেয়ার, শাওন রায় ও দেবাঞ্জন দীপের হিট এন রান, সফিউল এহসান ও আব্দুল মতিন, জাকি রায়ান ও সাফকাতের টর্পেডো এবং জাহেদ জিয়া ও ফয়সাল ইস্লামের পোলার ভরটেক্স।

টুর্নামেন্টে উপস্থিত থেকে খেলোয়াড়দের উৎসাহ দিয়েছেন সাবেক অলিম্পিয়ান ও ফারমিংটন হিলস টেবিল টেনিস সেন্টারের প্রতিষ্ঠাতা ডেভিড কেলসচিক। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন মিশিগানের বাংলাদেশি স্থানীয় কমিউনিটি নেতা মোহাম্মদ শাহীন ইসলাম, ড. মোহাম্মদ নাজমুল আনোয়ার, ফয়সাল সাইদ, শরিফ হাসান, এমডি আলম, ফরিদ চৌধুরী, গোলাম মোস্তফা, সাইদ রব, মাহমুদুল খান আপেল, ড. চন্দ নাথ, মোহাম্মদ আনোয়ার, আবিদ রহমান, ড. রিয়াজ ও তায়েফ রহমান।

এ ধরনের টুর্নানেম্ট আয়োজনে বাংলাদেশি কমিউনিটির মাঝে সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে বলে উপস্থিত খেলোয়াড় ও আগত অতিথিরা মন্তব্য করেন। টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটিতে ছিলেন রসি মীর, কৌশিক আহমেদ, সালাহউদ্দিন আজিজ, মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইন, শরিফ হাসান, ড. সায়েদ আশরাফ, ফয়সাল সাইদ, মারুফ মনোয়ার জয় এবং সাইফ সিদ্দিকী। মিশিগানে বাংলাদেশিদের স্পোর্টস সংগঠন মিশিগান বেঙ্গলসের ব্যানারে আনন্দঘন পরিবেশে এ আয়োজনে অংশগ্রহণকারী সকল প্রতিযোগীকে ধন্যবাদ ও বিজয়ীদের অভিনন্দন জানান আয়োজকরা।

আইএইচএস/বিএ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :