মালয়েশিয়ায় অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউসের ১৪ বছর পূর্তি

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৮:১৬ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০১৯

অবিচল আস্থা অর্জনের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ব্যাংকিং সেবার ১৪ বছর পূর্ণ করেছে অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেডের নিয়ন্ত্রণাধীন মালয়েশিয়াস্থ অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউস। এ উপলক্ষে ১৮ অক্টোবর সন্ধ্যায় মালয়েশিয়ার গ্রান্ড মিলেনিয়াম হোটেলে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

১৪ বছর পূর্তিতে কেক কাটার মধ্য দিয়ে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠান। এতে মালয়েশিয়া থেকে অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউসের মাধ্যমে বৈধপথে দেশে সর্বোচ্চ অর্থ পাঠিয়েছেন, তাদের সম্মাননা দেয়া হয়। যারা সম্মাননা পেয়েছেন তারা হচ্ছেন, সানওয়ে ইউনিভার্সিটির প্রফেসর সাইদুর রহমান, প্রফেসর মাইন খন্দকার ও প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম খোকন। এ ছাড়া বৈধপথে দেশে রেমিট্যান্স প্রেরণে মিডিয়া কাভারেজের সম্মাননা পেয়েছেন, সাংবাদিক আহমাদুল কবির।

Maleshiya3

সম্মাননা প্রদান করেন অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. জায়েদ বখত, মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের শ্রম কাউন্সিলর ও অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউসের ডাইরেক্টর মো. জহিরুল ইসলাম, ম্যানেজিং ডাইরেক্টর অ্যান্ড সিইও মোহাম্মদ শামস-উল ইসলাম।

Maleshiya3

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউসের ডাইরেক্টর ড. সাইদ আবু হাসান বিন সাইদ আবুল ফজল, মালয়েশিয়াস্থ অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউসের সিইও, ডাইরেক্টর খালেদ মোর্শেদ রিজভী ও অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউসের কোম্পানি ডাইরেক্টর জুলি কুহ।

Maleshiya3

২০০৬ সালের জানুয়ারি মাসে মালয়েশিয়ায় যাত্রা শুরু করে অগ্রণী রেমিট্যান্স হাউস। এরপর থেকে কীভাবে বৈধপথে দেশে রেমিট্যান্স বাড়ানো যায় সে লক্ষ্যে রেমিট্যান্স প্রেরণে সচেতনতামূলক বিভিন্ন সভা সেমিনার করে যাচ্ছেন সংশ্লিষ্টরা। অগ্রণী রেমিট্যান্সের ৬টি শাখার পাশাপাশি এজেন্ট নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে। মালয়েশিয়া থেকে রেমিট্যান্স আরও বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন অগ্রণী রেমিটেন্স হাউসের কর্মকর্তারা।

এমআরএম/এমকেএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com