দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি দেশকে আরও সমৃদ্ধ করবে

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১১:০৪ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯
মালয়েশিয়া আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের আসন্ন তৃতীয় বার্ষিকী সম্মেলন প্রস্তুতি সভায় বক্তব্য দিচ্ছেন হাইকমিশনের শ্রম কাউন্সিলর (২) মো. হেদায়েতুল ইসলাম মণ্ডল (বামে), উপস্থিত নেতাদের একাংশ (ডানে)।

দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্স নীতি দেশকে আরও সমৃদ্ধ করবে। রোববার সন্ধ্যায় মালয়েশিয়া আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত আসন্ন ৩য় বার্ষিকী সম্মেলন প্রস্তুতি সভায় বক্তারা এসব বলেন।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক তারিকুজ্জামান চৌধরী মিতুলের উপস্থাপনায় সভাপতি বি এম বাবুল হাসানের সভাপতিত্বে সভায় বক্তারা বলেন, দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করতে সরকার কতটা বদ্ধপরিকর তা বর্তমানের দুর্নীতি বিরোধী অভিযান থেকে বোঝা যায়। দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে গেছে একমাত্র আওয়ামী লীগ, বাকিরা দেশকে কেবল গিলে খেয়েছে।

মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের মধ্যে যে বিভাজন রয়েছে তা থেকে সরে সবাই এক হয়ে ঐক্যের মাধ্যমে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানিয়েছেন বক্তারা।

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ হাইকমিশনের শ্রম কাউন্সিলর (২) মো. হেদায়েতুল ইসলাম মণ্ডল বলেন, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে আসা বাংলাদেশি কর্মীদের চাকরি না পাওয়ার হার ছিল শূন্যের কোটায় যা এর আগে ২০০৫ ও ২০০৬ সালে ছিল প্রায় ৭০ শতাংশ। ওই সময়ের তুলনায় বর্তমানে খরচও অনেক কম হয়েছে।

southeast

এটি সম্ভব হয়েছে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া সরকারে সমন্বয়ে হাইকমিশনের আন্তরিক চেষ্টার ফলে। পাসপোর্ট বিভাগের জন্য আলাদা ভবন নেওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রীকে জানালে তিনি সাথে সাথে তা বাস্তবায়নের অনুমতি দিয়েছিলেন। ফলে হাইকমিশন প্রবাসীদের সেবা প্রদান করতে পারছে।

তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়া প্রবাসীদের হাতে জাতীয় পরিচয়পত্র তুলে দেওয়ার কার্যক্রম শিগগিরই শুরু হবে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের সাথে কাজ করছি আমরা। কমিউনিটির নেতাদের সহযোগিতা পেলে প্রবাসীদের সকল সমস্যা সমাধানে আরও কার্যকর ভূমিকা পালন করতে পারবে হাইকমিশন, তাই সবার সহযোগিতা কামনা করি আমরা।

সভায় বক্তব্য দেন- মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি মকবুল হোসেন মুকুল, সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান কামাল, মুক্তিযোদ্ধা শওকত হোসেন পান্না, মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, সুহেল বিন রানা, মামুন, মনির দেওয়ান, আল আমিন, রেজাউল হক লায়ন, মালয়েশিয়া শ্রমিক লীগ সভাপতি নাজমুল ইসলাম বাবুল, সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম হাওলাদার, মালয়েশিয়া স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি শেখ জাহাঙ্গীর, নিপু বিশ্বাস ও আবুল কাসেম শাহিন।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অব মালয়েশিয়ার সভাপতি মনির বিন আমজাদ। এ ছাড়া স্বেচ্ছাসেবক লীগ সহ-মালয়েশিয়া শাখা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী, সমর্থক এবং প্রবাসী বাংলাদেশিরাও।

এমআরএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com