আমিরাতে প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র বিতরণের উদ্বোধন

মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন
মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন , আমিরাত প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৪:৫১ এএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ভোটার তালিকা প্রণয়ন এবং স্মার্ট কার্ড বিতরণের উদ্বোধন করা হয়েছে।

সোমবার (১৮ নভেম্বর) আমিরাতে বাংলাদেশের নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরানের সভাপতিত্বে ও দুবাই কনসুলেটের কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসেন খান এর সঞ্চালনায় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ, কে আব্দুল মোমেন।

উদ্বোধনকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রবাসীদেরকে সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সহযোগী হিসেবে কাজ করতে হবে। সরকারের ঐতিহাসিক সকল ডিজিটাল উদ্যোগকে সফল করতে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে প্রবাসীদের অবদানের কথা স্মরণ রেখে আমিরাত প্রবাসীদের কাজ করতে হবে।

এ সময় তিনি বলেন, আমরা এখন আর তলাবিহীন ঝুঁড়ি নয় আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ দেশ। আপনারা জেনে খুশি হবেন প্রধানমন্ত্রী গতকাল আমিরাতের প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলাপকালে এই দেশে চাল রপ্তানির কথা বলেছেন। শিগগিরই তাদের একটি টিম বাংলাদেশে যাবে এবং চাল রপ্তানি শুরু হবে। শুধু চাল নয় প্রবাসী ব্যবসায়ীদেরও উচিত বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য এখানে নিয়ে আসা।

মন্ত্রী বলেন, আগামী দুই বছর বাংলাদেশের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই দুই বছরে সরকারের সকল মিশন বাস্তবায়নে প্রবাসীদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। বিশেষ করে বিভিন্ন দেশে বঙ্গবন্ধু কর্ণার, বঙ্গবন্ধু সেন্টার এসব নাম দিয়ে দেশকে পরিচিতি করাতে হবে।

আমিরাতের ভিসা চালুর ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ও আমিরাতের যুবরাজের মধ্যকার আলাপ সম্পর্কে বলেন, এখনো শ্রমবাজার চালু হয়নি এটা সত্য, তবে প্রধানমন্ত্রীকে যুবরাজ বলেছেন আগামী সফরে এই প্রশ্ন আর করতে হবে না।

প্রবাসীরা একেকজন দেশের দূত উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, এই দেশে কোনো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড যাতে না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আমিরাতের স্থানীয় গণমাধ্যমের সাথে সুসম্পর্ক সৃষ্টি করতে কমিউনিটিকে উদ্যোগ নিতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- এনআইডি অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার সাইদুল ইসলাম, নির্বাচন কমিশনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, কমিউনিটির নেতারা, সংবাদকর্মীসহ প্রবাসীরা।

এমআরএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com