মালয়েশিয়ায় ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে স্বাধীনতা দিবস পালিত

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১২:০১ এএম, ২৭ মার্চ ২০২০

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে পারস্পরিক সংস্পর্শ এড়িয়ে ভিডিও কনফরেন্সিং প্রক্রিয়ায় সবার সঙ্গে সংযুক্ত হয়ে বাংলাদেশ হাইকমিশন স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করা হয়েছে।

লেবার কাউন্সেলর-২ মো. হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডলের সঞ্চালনায় দেশের মহান স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানের শুরুতে হাইকমিশনার মহ. শহীদুল ইসলাম জাতীয় সংগীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং মুক্তিযুদ্ধের সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা, রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীসহ দেশ ও জাতির মঙ্গল, প্রবাসীদের মঙ্গল এবং করোনাভাইরাসের মহামারীর হাত থেকে সবার সুরক্ষা কামনা করে মোনাজাত করেন হাইকমিশনের কাউন্সেলর (কনস্যুলার) মোহাম্মদ মাসুদ হোসেন।

এ দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির বাণী পাঠ করেন ডিফেন্স অ্যাডভাইজার কমডোর মুশতাক আহমেদ পি এস সি, প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন ডেপুটি হাইকমিশনার ও দূতালয় প্রধান ওয়াহিদা আহমেদ, পররাষ্ট্র মন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন কাউন্সেলর মো মশিউর রহমান তালুকদার এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর বাণী পাঠ করেন প্রথম সচিব রুহুল আমিন।

হাইকমিশনার স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, বাঙালি জাতির জীবনে আজকে একটি বিশেষ দিন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণার মাধ্যমে শুরু হয় আমাদের মাতৃভূমির স্বাধীনতার সংগ্রাম। স্বাধীনতার মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে সবাইকে দেশ গঠনে একসাথে কাজ করার অনুরোধ জানান।

বর্তমান করোনা বিস্তার প্রতিরোধ কল্পে তিনি বলেন, মালয়েশিয়া সরকারের দেওয়া নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে। নিজে সচেতন থাকা, স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা বিশেষ করে, সাবান বা হ্যান্ড ওয়াস দিয়ে হাত ধোয়া, হ্যান্ড সেক বা মোলাকাত না করা, টিস্যু ব্যবহার করা, যেখানে সেখানে ঘোরাঘুরি না করা।

এভাবে সকল নিয়ম-কানুন প্রতিপালন করে এ মহামারী মোকাবেলা করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, গুজব বা আতংক সৃষ্টি না করে ধৈর্য ধরে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে। তিনি ফোন বা ইমেইলে বা মেসেঞ্জারের মাধ্যমে হাইকমিশনে যোগাযোগ করার জন্য প্রবাসীদের আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লেবার কাউন্সেলর মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম, কমার্শিয়াল কাউন্সেলর মো রাজিবুল আহসান, প্রথম সচিব (পলিটিক্যাল) তাহমিনা ইয়াসমিন এবং প্রথম সচিব (পলিটিক্যাল) রুহুল আমিন।

এমআরএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com