জর্ডানে গ্রেফতার বাংলাদেশি সাংবাদিকের দ্রুত মুক্তি দাবি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০২ এএম, ১৯ এপ্রিল ২০২০

জর্ডান প্রবাসী সাংবাদিক সেলিম আকাশের দ্রুত মুক্তির দাবি জানিয়েছে রিপোর্টার্স ফর বাংলাদেশি মাইগ্রেন্ট (আরবিএম)। সংগঠনটির পক্ষ থেকে গ্রেফতারের ঘটনায় নিন্দাও জানানো হয়।

শনিবার (১৮ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে সেলিমের মুক্তির দাবি জানায় সংগঠনটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, সম্প্রতি জর্ডান প্রবাসীদের খাদ্য সংকট নিয়ে অনলাইন নিউজপোর্টাল জাগো নিউজে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন সেলিম। ওই প্রতিবেদনের রিপোর্টের শিরোনাম ছিল ‘করোনাভাইরাস: জর্ডানে খাদ্য সঙ্কটে ৩০ হাজার বাংলাদেশি’

গণমাধ্যমে খবর আসে, এই প্রতিবেদনে দূতাবাসের কয়েকজন কর্মকর্তা ক্ষুব্ধ হন এবং এর জেরেই সেলিমকে গ্রেফতার করানো হয় বলে অভিযোগ তার স্বজন ও সহকর্মীদের।

এ বিষয়ে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে আরবিএম। সংগঠনটি মনে করে, একজন সাংবাদিক প্রবাসীদের স্বার্থ নিয়ে কাজ করতে যাওয়ায় যদি এভাবে গ্রেফতার করানো হয়, তা খুবই দুর্ভাগ্যজনক।

সাংবাদিক সেলিম আকাশকে গ্রেফতারের পেছনে দূতাবাসের যারা জড়িত তাদের শাস্তি চায় আরবিএম। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নিয়ে সেলিম আকাশের দ্রুত মুক্তির ব্যবস্থা করতে পদক্ষেপ নেবে বলেও আশা করছেন আরবিএম সদস্যরা।

উল্লেখ্য, জর্ডানে স্ত্রী ও দুই সন্তানসহ বসবাস করে আসছেন সেলিম আকাশ। তার স্ত্রী জোনা আকাশ জর্ডান থেকে জাগো নিউজকে জানান, আকাশের বিরুদ্ধে বুধবার (১৫ এপ্রিল) পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলা করে আদালতে হাজির করে।

সেলিম আকাশের সহকর্মী ও স্বজনরা জানান, মূলত দূতাবাসের কর্মকর্তাদের ইন্ধনের পরিপ্রেক্ষিতেই সাংবাদিক সেলিম আকাশকে আটক করে নিয়ে গেছে দেশটির পুলিশ।

সাংবাদিক সেলিম আকাশ জাগো নিউজের পাশাপাশি বাংলা টিভি, দৈনিক আমাদের সময়, আকাশ যাত্রাসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমের জর্ডান প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেন। এসব গণমাধ্যমেও প্রায় ৩০ হাজার জর্ডান প্রবাসী বাংলাদেশির খাদ্য সংকট নিয়ে তার করা প্রতিবেদন প্রকাশ হয়।

করোনাভাইরাসের মতো পরিস্থিতিতে তাকে ধরিয়ে দেয়ায় দূতাবাসের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সেলিমের সহকর্মী ও প্রবাসী অন্যান্য সাংবাদিকরা। তারা বলেছেন, ভোগান্তি নিয়ে প্রতিবেদন করার কারণে এভাবে সংবাদকর্মীকে গ্রেফতারে পুলিশকে উসকানি দিয়ে সংশ্লিষ্টরা নিজেদের মুখোশ উন্মোচন করেছেন প্রবাসীদের সামনে।

জেপি/এমএসএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]