প্রবাসে আনন্দ-বেদনার ঈদ

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০২ এএম, ৩১ জুলাই ২০২০

হেনা বেগম, যুক্তরাজ্য থেকে

সেই কবে বাবার পায়ে সালাম করেছিলাম আর মাকে জড়িরে ধরে চুমু খেয়েছিলাম ঠিক মনে নেই। স্মৃতির জানালা আজ ঝাপসা আবছায়া। সেই কবে ঈদের সকালে সবার আগে পুকুরে গোসল করেছিলাম মনে নেই। আজ মা বাবাও নেই সেই ঈদের আনন্দ নেই। প্রবাসের ঈদ মানে আনন্দ বেদনার মিশ্রিত অশ্রুজলে ভোরের সূর্যোদয়।

দীর্ঘ প্রবাস জীবনে অসংখ্য ঈদ কেটেছে আমার আনন্দ বেদনায়। প্রবাসের ঈদ মানে সবাই একত্রিত হওয়া, যান্ত্রিক জীবনে ভাই-বোনের সাথে আত্মীয়-স্বজনের সাথে একটি দিন অতিবাহিত করা, মজার মজার রান্না করা নতুন কাপড় পরে ছবি তোলা। কিছুটা সময় হলেও নিজেকে ঈদের আনন্দে ডুবিয়ে রাখা।

এখানে কোরবানি দিলেও নিজেকে কাজ করতে হয় না তাই সেই ঝামেলা থেকে বিরত থাকা যায়। প্রতি বছর ঈদের থেকে এবারের ঈদ সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম। মরণব্যাধি করোনা মহামারি থমকে দিয়েছে বিশ্বকে। এবারের ঈদে নেই কোনো আয়োজন, নেই ঈদের আনন্দ উত্তেজনা, সবাই ঘরে বন্দি অদৃশ্য ভাইরাসের তাণ্ডবে।

খোলা মাঠে ঈদের জামাত নেই, ঈদের চিরচেনা কোলাকোলি নেই, বাচ্চাদের নতুন কাপড় কেনার বায়না নেই, মুখরোচক বিভিন্ন খাবার রান্না করার প্রস্তুতি নেই। আনন্দ বেদনার ঈদের নাম হচ্ছে প্রবাসের ঈদ। এবারের ঈদে অনেক সীমাবদ্ধতা থাকার পরেও আসুন নিজের মতো করে পরিবারের সাথে ভাগাভাগি করে নেই ঈদের আনন্দ।

পৃথিবী সুস্থ হয়ে ফিরে আসুক আপন নিয়মে। খুব শিগগিরই আঁধার কেটে আলোকিত ভোর আসবে সোনা রোদে। সবাই ভালো থাকুন নিরাপদে থাকুন। ঈদের শুভেচ্ছা।

শিক্ষিকা, সংস্কৃতিকর্মী।

এমআরএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]