ধর্ষণের প্রতিবাদে নিউইয়র্কে মানববন্ধন ২৯ সেপ্টেম্বর

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশে সাম্প্রতিক ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়েছে। নিউইয়র্কের ক্ষুব্ধ সচেতন প্রবাসীর উদ্যোগে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার্সিটি প্লাজায় এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হবে।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার সমন্বয়কারী তোফাজ্জল লিটন বলেন, ‘ধর্ষণের বিচার না হওয়ায় বাংলাদেশে ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাচ্ছে। সরকার এই বিষয়ে দ্রুত বিচার কার্যক্রম চালু করবে বলে আমরা আশাবাদী। আমরা প্রত্যেকটি ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই’।

প্রতিবাদ সমাবেশের উদ্যোক্তা কান্তা কবীর বলেন, ‘সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে তরুণী ধর্ষণ ও খাগড়াছড়িতে ধর্ষণের ঘটনায় আমরা মর্মাহত। প্রবাসে থেকেও দেশের এমন মানবিক বিপর্যয়ের ঘটনা জানতে পেরে আমরা নীরব থাকতে পারি না’।

সবাইকে ২৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ডাইভার্সিটি প্লাজায় প্রবাসী নাগরিকদের সমাবেশে উপস্থিত হওয়ার জন্য তিনি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, শুক্রবার বিকেলে স্বামীর সঙ্গে এমসি কলেজে বেড়াতে গিয়েছিলেন এক গৃহবধূ। সন্ধ্যায় তাদের কলেজ থেকে ছাত্রাবাসে ধরে নিয়ে যায় ছাত্রলীগের ৬-৭ জন নেতাকর্মী। এরপর দুইজনকে মারধর করা হয়। একই সঙ্গে স্বামীকে আটকে রেখে তার সামনে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করে তারা। খবর পেয়ে রাতে ছাত্রাবাস থেকে ওই দম্পতিকে উদ্ধার করে পুলিশ।

পরে ধর্ষণের শিকার হওয়া নারীকে ওসমানী হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় শনিবার সকালে ছয়জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত দু-তিনজনের বিরুদ্ধে শাহপরান থানায় মামলা করেন নির্যাতিত গৃহবধূর স্বামী।

মামলার আসামিরা হলেন- এমসি কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর রহমান, শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, মাহফুজুর রহমান মাছুম, রবিউল হাসান, তারিকুল ইসলাম তারেক ও অর্জুন লস্কর।

এর মধ্যে তারেক ও রবিউল বহিরাগত, বাকিরা এমসি কলেজের ছাত্র। তবে তারা সবাই আওয়ামী লীগের সাবেক যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক রঞ্জিত সরকারের অনুসারী বলে জানা গেছে।

এমআরএম/এমকেএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]