পর্তুগালের গোল্ডেন ভিসার যুগ শেষ হতে চলেছে!

মো. রাসেল আহম্মেদ
মো. রাসেল আহম্মেদ মো. রাসেল আহম্মেদ
প্রকাশিত: ০৫:৫২ এএম, ২১ নভেম্বর ২০২০

পর্তুগালে বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে ২০১২ সালে দেশটির সরকার গোল্ডেন ভিসা প্রোগ্রাম চালু করেছিল। এই ক্যাটাগরিতে ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রায় ৬ হাজার ৫০০ জন বিনিয়োগকারী দেশটিতে অর্থলগ্নি করেছে। যার ফলে অর্থনীতিতে যোগ হয়েছে প্রায় ৫ বিলিয়ন ইউরো।

গোল্ডেন ভিসায় যারা পর্তুগালে বিনিয়োগ করার কথা ভাবছেন তাদের জন্য দুঃসংবাদ হচ্ছে পর্তুগীজ সরকার গত ফেব্রুয়ারি মাসে এই আইনটির সংশোধনী অনুমোদন করেছে।

যদি এই সংশোধনী কার্যকর হয় তাহলে বিনিয়োগকারীদের বিভিন্ন বিধিনিষেধের মধ্যে পড়তে হবে। বিশেষ করে পর্তুগালের বড় শহর লিসবন, পোর্তো এবং আলগ্রারভ অঞ্চলে সম্পত্তি ক্রয়ের ওপর।

আরেকটি বড় পরিবর্তন আসতে পারে বিনিয়োগকৃত অর্থের পরিমাপে। যেমন- বর্তমানে সমগ্র পর্তুগালের জন্য ৫ লাখ ইউরো এবং আলগ্রারভ অঞ্চলে ৪ লাখ হাজার ইউরো যদি কেউ রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগ করে কিন্তু নতুন সংশোধিত আইনে এই অঙ্ক বাড়বে।

তাছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে প্রচলিত গোল্ডেন ভিসা বা ইনভেস্টমেন্ট ভিসার বিষয়ে কঠোর মনোভাব পোষণ করা হয়েছে।
ইউরোপীয় নেতারা এটিকে কালো টাকা সাদাকরণের মাধ্যমে এবং এটির মাধ্যমে নিরাপত্তা ব্যবস্থা হুমকির মুখে বলে দাবি করেন। তাই অতি দ্রুত এই ব্যবস্থা থেকে ফিরে আসার জন্য সকলে ঐকমত্য পোষণ করতে বলা হয়েছে।

এফআর

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]