অন্যের পাসপোর্ট দিয়ে টিকাদান, মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির ৯ মাসের সাজা

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ১১:৫২ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
অভিযুক্ত বাংলাদেশি যুবক সাদ্দাম হোসেন

মালয়েশিয়ায় অন্যের পাসপোর্ট নম্বর দিয়ে করোনাভাইরাসের টিকা নিতে গিয়ে জালিয়াতির কারণে গ্রেফতার হয়েছেন বাংলাদেশি যুবক মো. সাদ্দাম হোসেন।

পরে অভিযুক্ত সাদ্দাম হোসেনকে পুলিশ আজ (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে আদালতে হাজির করলে তিনি তার দোষ স্বীকার করেন। আদালত এ অপরাধের জন্য তাকে নয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন। দুপুরে দেশটির জাতীয় দৈনিক বেরিতা হারিয়ানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

পত্রিকাটি জানায়, সাদ্দাম হোসেন আরেক বাংলাদেশি প্রবাসী মো. হেলাল মিয়ার পাসপোর্ট দিয়ে টিকার নিবন্ধনের জন্য ব্যবহৃত অ্যাপ Mysejahtera-তে টিকা নেওয়ার জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট নেন। গত ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় সাদ্দাম ইউনিভার্সিটি ইসলাম মালয়েশিয়া সেন্টারে টিকা নেওয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পড়েন।

পরে পুলিশ দেশটির আইনের ৪১৯ ধারায় তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে শুক্রবার আদালতে হাজির করলে ডেপুটি পাবলিক প্রসিকিউটর নুরুল মুহাইমিন মোহাম্মাদ আজমান তাকে নয় মাসের কারাদণ্ড দেন। এসময় অভিযুক্ত সাদ্দামের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না। আসামিকে যেদিন গ্রেফতার করা হয় সেদিন থেকে তার কারাদণ্ডের হিসাব ধরা হবে বলে প্রতিবেদনে জানা গেছে।

করানো মহামারি প্রতিরোধে মালয়েশিয়ায় গণটিকাদান কর্মসূচি চলছে। দেশটির সব নাগরিককে বিনামূল্যে টিকা দেওয়া হচ্ছে। যারা প্রবাসী কর্মী তাদের বলা হয়েছে, শুধু পাসপোর্ট থাকলেই বৈধ ও অবৈধ সব প্রবাসী বিনামূল্যে টিকা নিতে পারবেন। টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে ভিসা কিংবা পারমিটের প্রয়োজন নেই বলে জানানো হয়েছে।

এআরএ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]