মালয়েশিয়ায় সেরা শিক্ষার্থীর সম্মাননা পেলেন চট্টগ্রামের ওলিদ

আহমাদুল কবির
আহমাদুল কবির আহমাদুল কবির , মালয়েশিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৯:২৬ পিএম, ০৭ আগস্ট ২০২২

মালয়েশিয়ায় সেরা শিক্ষার্থীর সম্মাননা পেলেন চট্টগ্রামের পাচঁলাইশের নাসির উদ্দিন চৌধুরীর ছেলে ওলিদ। কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটি ইউকে-এর সহযোগিতায় মালয়েশিয়ার ইন্টি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে ২০১৮ সালের জানুয়ারি ও ২০২১ সালের ডিসেম্বর সময়কালে তথ্য প্রযুক্তিতে স্নাতক অধ্যয়ন করে কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটি থেকে সেরা শিক্ষার্থীর সম্মাননা পান তিনি।

কভেন্ট্রি ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর ডক্টর লা ইম উইংয়ের কাছ থেকে শুক্রবার (২৯ জুলাই) সেরা শিক্ষার্থীর সম্মাননা পুরস্কার নেন ওলিদ।

এ পুরস্কার কভেন্ট্রি থেকে সর্বোচ্চ সিজিপিএ প্রাপ্তদের দেওয়া হয়। আর এ পুরস্কার পাওয়ার আগে সেরা শিক্ষার্থীদের নামে বিশেষ চিঠি দেন প্রভাষক।

সর্বোচ্চ সিজিপিএ প্রাপ্ত ১২ শিক্ষার্থীর মধ্যে প্রথম এ অনুষদে একজন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী এ পুরস্কার পেলেন। অনুষদের সেরা শিক্ষার্থী নির্বাচিত হওয়ায় এইচ আইএন গ্রুপের পক্ষ থেকে আরও একটি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন ওলিদ। এইচ আইএন গ্রুপ অফ কোম্পানির মালিক লু চিং উই এক হাজার রিংগিতের চেক ও সম্মাননা ওলিদের হাতে তুলে দেন।

jagonews24

ওলিদ বলেন, দেশের বাইরে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করা এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এমন সম্মানজনক পুরস্কার জেতা খুবই গর্বের। আমি আশা করি, আমরা এমন আরও পুরস্কার জিততে পারব।

ওলিদের বাবা নাসির উদ্দিন চৌধুরী বলেন, সব বাবা-মা চায় সন্তান লেখাপড়ায় ভালো করুক। আমার কষ্ট আজ সফল হয়েছে। বিদেশের মাটিতে ওলিদ দেশের নাম উজ্জল করেছে। আমি গর্বিত।

২০১৮ সালে ব্যাচেলর ইন ইনফরমেশন টেকনলজি বিষয়ে ইন্টি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়ন শুরু করেন ওলিদ। ২০২১ সালে ৮০ জন শিক্ষার্থীকে পেছনে ফেলে প্রথম পুরস্কার (ডায়মন্ড) জিতেছিলেন বাংলাদেশি এ শিক্ষার্থী ।

৩৫টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত ফাইনাল ইয়ার প্রজেক্ট রিসার্চ অ্যান্ড ইনোভেশন পোস্টার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে (আরআইপিসি) প্রথম পুরস্কার পেয়েছেন। ২০১৯ সালে প্রথম চালু করা ইভেন্টটির লক্ষ্য ছিল শিক্ষার্থীদের চূড়ান্ত বছরের প্রকল্প, থিসিস, বা গবেষণাপত্র উপস্থাপন করা।

২০২১ সালের ৫ আগস্ট অনলাইনে ওলিদের গবেষণাপত্র জমা করার পর ২৮ আগস্ট ইন্টি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি জুরিবোর্ড তাকে প্রথম পুরস্কারে ভূষিত করে।

এমআইএইচএস/জিকেএস

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]