আল্লাহর বন্ধু হওয়ার ও শত্রুতা থেকে বাঁচার দোয়া

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:২৭ এএম, ৩১ মে ২০১৯

মানুষ আল্লাহর বন্ধু হবে কিংবা তার বন্ধুদের বন্ধু হবে এবং আল্লাহর দুশমনদের দুশমন হতে নির্দেশনা এসেছে কুরআন ও হাদিসে। সে মতেই মুমিন বান্দা আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেন।

কেউ আল্লাহর বন্ধু হতে চায়। আবার কেউ আল্লাহর দুশমনদের বন্ধু হতে চায় না বরং তা থেকে বেঁচে থাকতে চায়। যা মানুষকে আল্লাহর নৈকট্য লাভে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

আল্লাহর বন্ধুদের বন্ধু হতে এবং তার শত্রুতাকারীদের থেকে দূরে থাকতে বেশি বেশি পড়ুন-
اَللَّهُمَّ اجْعَلْنِىْ فِيْهِ مُحِبًّا لِاَوْلِيَائِكَ وَ مُعَادِيًا لِاَدَائِكَ مُسْتَنَّأً بِسُنَّةِ خَاتَمِ أَنْبِيّائِكَ يَا عَاصِمَ قُلُوْبِ النَّبِيِّيْنَ
উচ্চারণ : আল্লাহুম্মাঝ আলনি ফিহি মুহিব্বান লি-আওলিয়ায়িকা; ওয়া মুআদিয়ান লি-আদায়িকা; মুসতান্নাআন বিসুন্নাতি খাতামি আম্বিয়ায়িকা; ইয়া আচিমা কুলুবিন নাবিয়্যিন।

আরও পড়ুন > সালাতুত তাসবিহ পড়বেন যেভাবে

অর্থ : হে আল্লাহ! আমাকে তোমার বন্ধুদের বন্ধু বানিয়ে দাও এবং তোমার শত্রুদের শত্রু করে দাও। তোমার আখেরি নবির সুন্নাত ও পথ অনুযায়ী চলার তাওফিক আমাকে দান কর। হে নবীদের অন্তরের পবিত্রতা রক্ষাকারী।

রোজাদারের জন্য একটি কথা মনে রাখা জরুরি-
আল্লাহ তাআলা মন্দ কাজ সংঘটিত হওয়ার সব বিষয়গুলোকে হালকা করেছেন রোজাদারের ইবাদত-বন্দেগি করার জন্য। জান্নাতের দরজা খুলে দিয়েছেন জান্নাতি পরিবেশ লাভের জন্য। আবার জাহান্নামের দরজা ও শয়তানকে বেড়ি পড়ানোর মাধ্যমে অপরাধ প্রবণতা কমিয়ে দিয়েছেন।

সুতরাং পরকালের সফলতায় আল্লাহর সঙ্গে বন্ধুত্ব স্থাপন করা কিংবা তার বন্ধুদের সঙ্গে বন্ধুত্ব স্থাপন করা জরুরি। আবার যারা আল্লাহর দুশমনি করে তাদের থেকে দূরে থাকার দোয়া করাই উত্তম কাজ।

আরও পড়ুন > পুরো রোজায় যে বিশেষ দোয়াগুলো পড়বেন

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তার বন্ধু হওয়ার এবং শুত্রুদের সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগের মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/এমএস