ঐতিহাসিক জামেয়া মসজিদে এ সপ্তাহেও জুমআ পড়তে দেয়নি পুলিশ

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২৭ এএম, ০৩ নভেম্বর ২০১৯

ভারতের জম্মু-কাশ্মীরে অবস্থিত শ্রীনগরের ঐতিহাসিক জামেয়া মসজিদে গত শুক্রবারও (১ নভেম্বর) জুমআ পড়তে পারেনি কাশ্মীরের মুসলমানরা। নিরাপত্তার অজুহাতে টানা ১২ সপ্তাহ ধরে জম্মু-কাশ্মীরের বড় বড় সব মসজিদে জুমআর নামাজ বন্ধ করে রেখেছে ভারতীয় পুলিশ। গত ৫ আগস্ট থেকে সেখানে কঠোর বিধিনিষেধ চলছে।

জম্মু-কাশ্মীর কেন্দ্রীয় সরকার শাসিত প্রদেশটিতে গত বৃহস্পতিবার নতুন আইন কার্যকর করা হয়েছে। জম্মু-কাশ্মীর কেন্দ্রশাসিত নয়া প্রদেশে পরিণত হওয়ার পর প্রথম দিনও ছিল গত শুক্রবার। নয়া প্রদেশের প্রশাসন বিগত জুমআগুলোর মতো এ শুক্রবারও ঐতিহাসিক জামেয়া মসজিদে নামাজের অনুমতি দেয়নি।

শুধু জামেয়া মসজিদেই নয়, বরং কাশ্মীরের বড় বড় জামে মসজিদগুলোতে টানা ১২ সপ্তাহ তথা ৩ মাস ধরে জুমআ নামাজ আদায় বন্ধ রয়েছে। কাশ্মীরের পরিস্তিতি সামাল দিতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ‘অল ইন্ডিয়া সুন্নাত ওয়াল জামাআত’-এর সেক্রেটারি মুফতি আব্দুল মতিন।

তিনি আরও বলেন, ‘অথচ তারা (কেন্দ্রীয় সরকার) বলছে যে, কাশ্মীরে শান্তি ফিরছে! এটা অত্যন্ত ব্যর্থতা তাদের। কেন্দ্রীয় সরকার কাশ্মিরে শান্তি ফেরাতে ব্যর্থ হয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীরের বড় বড় মসজিদগুলোতে যেন আগামী জুমআ থেকে নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা করা হয়, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনারও দাবি করেছেন মুফতি আব্দুল মতিন।

এমএমএস/পিআর