কালেমার সাক্ষ্য দেওয়ার পুরস্কার

ইসলাম ডেস্ক
ইসলাম ডেস্ক ইসলাম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৪০ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০২২

সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ। অনেক ভালোবেসে আল্লাহ তাআলা মানুষকে সৃষ্টির সেরা জীব করে সৃষ্টি করেছেন। মুসলমানদের সৌভাগ্য যে, আল্লাহ তাআলা তাদেরকে কালেমার বিশ্বাস এবং বাস্তবায়নকারী হিসেবে সৃষ্টি করেছেন। কালেমার স্বীকৃতি দেওয়ায় রয়েছে সেরা পুরস্কার। কী সেই পুরস্কার?

হাদিসের দিকনির্দেশনা অনুযায়ী যারা কালেমার ওপর বিশ্বাস স্থাপন করবে এবং তা কথা ও কাজে বাস্তবায়ন করবে তার জন্য রয়েছে সবার সেরা পুরস্কার। নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, তাহলো সুনিশ্চিত জান্নাত। হাদিসে পাকে এসেছে-

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, ‘আল্লাহ তাআলা ছাড়া কোনো ইলাহ ( ইবাদাতের উপযুক্ত উপাস্য) নেই এবং আমি আল্লাহর রাসুল।’ (আল্লাহর) যে কোনো বান্দা সন্দেহাতীতভাবে এ বাক্য দুটির ওপর ঈমান আনবে এবং সে আল্লাহ তাআলার সঙ্গে এমন অবস্থায় সাক্ষাৎ করবে যে, সে জান্নাত থেকে বঞ্চিত হবে না। (মুসলিম, নাসাঈ, বাইহাকি)

যারা নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের এ আহ্বান মনে প্রাণে গ্রহণ করবে, তারাই হবে সফলকাম। পরকালের চিরস্থায়ী জীবনের সুখ ও শান্তির আবাসস্থল জান্নাতও তাদের জন্য সুনিশ্চিত এবং নির্ধারিত। উল্লেখিত হাদিসই তার প্রমাণ।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে এ হাদিসের শিক্ষা গ্রহণ করে তাঁর প্রতি পরিপূর্ণ বিশ্বাস স্থাপন এবং নবিজিকে সর্বশেষ নবি ও রাসুল হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে সেরা পুরস্কার জান্নাত পাওয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/এমএস

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।