হজে গমনেচ্ছুদের প্রাক নিবন্ধনের সুবিধা


প্রকাশিত: ০৫:১৮ এএম, ২২ ডিসেম্বর ২০১৬

২০১৭ সালে হজে গমনেচ্ছুদের জন্য প্রাক নিবন্ধন শুরু করার তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে হজের প্রাক নিবন্ধন শুরু হবে আগামী ১৫ জানুয়ারি। যা হজে গমনেচ্ছুদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গত মঙ্গলবার (২০ ডিসেম্বর) রাজধানীর উত্তরার আশকোনা হজ ক্যাম্পে এ তারিখ ঘোষণা করেন ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান।

হজে গমনেচ্ছুদের জন্য প্রাক নিবন্ধন কার্যক্রম অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এ নিবন্ধনের ফলে হজে গমনেচ্ছুদের প্রতারিত হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কম। তাই হজের কার্যক্রমকে ত্রুটিমুক্ত, সহজ এবং সবার জন্য সমান উপযোগী হিসেবে নিশ্চিত করতেই গত বছর থেকে এ উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

সৌদি হজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সম্বন্বয় এবং হজ ব্যবস্থাপনাকে গতিশীল করার লক্ষ্যে গত বছর থেকে গ্রহণ করা এ উদ্যোগে যথেষ্ট সফলতা পেয়েছে হজযাত্রীগণ। গতবারের প্রাক নিবন্ধন তথ্য থেকে জানা যায় যে, গত বছর ১ লাখ ৪০ হাজার লোক হজের জন্য প্রাক নিবন্ধন করেছিল। যার মধ্য থেকে হজ ব্যবস্থাপনার সদস্যসহ সর্বমোট ১ লাখ ১ হাজার ৮২৯ জন হজ করতে সক্ষম হয়েছে।

প্রাক নিবন্ধনের সুবিধা
হজের প্রাক নিবন্ধন কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারীদের জন্য সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো- যারা গত বছর নিবন্ধন করা সত্ত্বেও হজ পালনে যেতে পারেনি; সে সব অতিরিক্ত হজে গমনেচ্ছুক যাত্রীরা ২০১৭ সালে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হজ পালন করতে পারবেন। তাই গত বছরের তালিকার পর থেকে এ বছর প্রাক-নিবন্ধন শুরু হবে বলেও জানান ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান।

স্বচ্ছ, ত্রুটিমুক্ত ও সহজ হজ সম্পাদনের লক্ষ্যে হজে গমনেচ্ছুকদের জন্য হজের প্রাক নিবন্ধন কার্যক্রম অত্যন্ত আবশ্যকীয় বিষয়। সুতরাং হজের সব সুবিধা পেতে আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া হজের প্রাক নিবন্ধন কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হজ পালন করুন।

এমএমএস/জেআই

আপনার মতামত লিখুন :