কাগতিয়া মাদরাসা ইলমে জাহের-বাতেনের মহাকেন্দ্র : বিজেএম মহাসচিব


প্রকাশিত: ০২:০২ এএম, ২০ মার্চ ২০১৭
কাগতিয়া মাদরাসা ইলমে জাহের-বাতেনের মহাকেন্দ্র : বিজেএম মহাসচিব

কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা খলিলুল্লাহ, আওলাদে মোস্তফা, খলিফায়ে রাসূল হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম (রা.)’র প্রাণপ্রিয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এমএ মাদরাসার ৮৫তম সালানা জলসায় বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদার্রেছীনের মহাসচিব হযরতুলহাজ্ব আল্লামা অধ্যক্ষ শাব্বির আহমদ মোমতাজী বলেন, কাগতিয়া মাদরাসা ইলমে জাহের-বাতেনের এক মহাকেন্দ্র।

শনিবার (১৮মার্চ) মাদরাসা ময়দানে অনুষ্ঠিত সালানা জলসায় ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, কাগতিয়া মাদরাসার পরিবেশ দেখলে মানুষের মন-প্রাণ আনন্দে উদ্বেলিত হয়।

বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদার্রেছীনের মহাসচিব হযরতুলহাজ্ব আল্লামা অধ্যক্ষ শাব্বির আহমদ মোমতাজীর সভাপতিত্বে জলসায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল মনছুর।

প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ আরও বলেন, আধুনিক যুগোপযুগী শিক্ষায় সুশিক্ষিত আলেম তৈরির মাধ্যমে ইসলামের খেদমত ও সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কাগতিয়া মাদরাসা সারা দেশের মডেলে পরিণত হবে।

জলসায় সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ আল্লামা শাব্বির আহমদ মোমতাজী আরও বলেন, হযরত গাউছুল আজম (রা.)’র সংস্পর্শে ধন্য এ মাদরাসা যেন বিশ্বখ্যাত নেজামীয়া মাদরাসার প্রতিচ্ছবি। মাদরাসার অধ্যক্ষ আল্লামা ছৈয়্যদ মুহাম্মদ মুনির উল্লাহ আহমদী ছাহেবের সুযোগ্য পরিচালনায় মাদরাসার প্রকৃত উন্নয়নে যে আপ্রাণ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তা সত্যিই অসাধারণ। ঐতিহ্যবাহী কাগতিয়া মাদরাসার সালানা জলসাকে ঘিরে হাজার হাজার প্রাক্তন  শিক্ষার্থী, অভিভাবক, এলাকাবাসী, তরিক্বতপন্থী, ছাত্র-শিক্ষকের এক মিলনমেলা ঘটে।

মাদরাসার প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা তাদের প্রাণপ্রিয় মাদরাসার উন্নতি দেখে খুবই খুশী হন।

জলসায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ওলামা পরিষদের সভাপতি হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুফতি ইব্রাহিম হানফী, সচিব হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুফতি কাজী মুহাম্মদ আনোয়ারুল আলম ছিদ্দিকী, সাংগঠনিক সম্পাদক আল্লামা মুহাম্মদ আশেকুর রহমান, এশায়াত সম্পাদক হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুহাম্মদ এমদাদুল হক মুনিরী, মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশের সহ-এশায়াত সম্পাদক আল্লামা মুহাম্মদ সেকান্দর আলী।

মিলাদ ও কিয়াম শেষে দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি, মাদরাসার উন্নতি এবং হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম (রাঃ)’র রুহানী নজর ও ফুয়ুজাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করা হয়।

এএইচ