সত্য প্রকাশ ও ইবাদাতের নির্দেশনা


প্রকাশিত: ০৫:১৯ এএম, ২৩ জানুয়ারি ২০১৬

আল্লাহ তাআলা তাওরাতের অনুসারণকারীদেরকে সত্য প্রকাশ ও শারিরীক ও আর্থিক ইবাদাত বন্দেগিতে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য নির্দেশ প্রদান করেন। আল্লাহ তাআলা বলেন-

Quran-Inner

তোমরা সত্যকে মিথ্যার সাথে মিশিয়ে দিও না এবং জানা সত্ত্বে সত্যকে তোমরা গোপন করো না। আর নামাজ কায়েম কর, জাকাত দান কর এবং নামাজে অবনত হও তাদের সাথে, যারা অবনত হয়। (সুরা বাক্বারা : আয়াত ৪২-৪৩)

পূর্ববর্তী আয়াতে ইয়াহুদিদেরকে দেয়া নিয়ামাতের কথা এবং ইসলামের দাওয়াতের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। অত্র আয়াতদ্বয়ে তাদের বদ অভ্যাস পরিত্যাগ করার আহবান করা হয়েছে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং কুরআন আগমনের সত্য সংবাদ জানা সত্ত্বেও তারা সত্যকে গোপন করার পাশাপাশি মিথ্যার আশ্রয় গ্রহণ করতো। তাদের এ কুঅভ্যাস পরিহার করতে বলা হয়েছে।

তাদেরকে উপদেশ দেয়া হচ্ছে যে, ইয়াহুদিরা যেন সত্যকে প্রকাশ করে ও স্পষ্ট বর্ণনা করে। ন্যায় ও অন্যায়, সত্য ও মিথ্যাকে মিশ্রিত না করে, ইয়াহুদি ও খ্রিস্টানদের বিদাআতকে ইসলামের সঙ্গে মিশ্রিত না করে। আল্লাহর বান্দাদের মঙ্গল কামনা করে,  সর্বোপরি তাদের ধর্মগ্রন্থ তাওরাতে হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সম্পর্কে যে ভবিষ্যদ্বাণী পেয়েছে তা সর্বসাধারণের মধ্যে প্রকাশ করতে কার্পণ্য না করে।

অতপর তাদেরকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে যে, তারা যেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সঙ্গে নামাজ পড়ে, তাঁকে জাকাত প্রদান করে, তাঁর উম্মাতের সঙ্গে রুকু ও সিজদায় অংশগ্রহণ করতে থাকে, তাদের সঙ্গে মিলেমিশে থাকে এবং তারা নিজেরাও যেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের উম্মাত হয়ে যায়।

পরিশেষে...
বর্তমান সময়েও কুরআন ও হাদিসের বাণীকে বিকৃত করার প্রয়াসে নিয়োজিত রয়েছে বিভিন্ন দল ও মতের লোকজন। আল্লাহ তাআলা  বিপথগামী লোকদেরকে সঠিক বুঝ দান করুন এবং উক্ত আয়াতদ্বয়ের শিক্ষা আমাদের জীবনে বাস্তবায়ন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/এমএস