Jago News logo
ঢাকা, সোমবার, ২৭ মার্চ ২০১৭ | ১৩ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ

ফখরুলের নির্দেশনা ‘উপেক্ষিত’


মানিক মোহাম্মাদ, নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৮:৫৪ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৭, সোমবার | আপডেট: ১১:০৮ এএম, ২১ মার্চ ২০১৭, মঙ্গলবার
ফখরুলের নির্দেশনা ‘উপেক্ষিত’

‘দলীয় কার্যালয় সংলগ্ন ভবনগুলোতে কোনো নেতাকর্মীর নামে ব্যানার-ফেস্টুন টাঙানো যাবে না। শুধুমাত্র দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ছবিসহ ব্যানার-ফেস্টুন টাঙানো যাবে।’

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন নির্দেশনা মানা হচ্ছে না। সরেজমিনে দলটির নয়াপল্টনের প্রধান কার্যালয় ঘুরে এর সত্যতা পাওয়া গেছে।

দেখা গেছে, দলীয় কার্যালয়ের আশপাশের ভবনগুলোতে বিএনপি বলয়ের অনেক নেতাকর্মীর ছবিসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যানার-ফেস্টুন শোভা পাচ্ছে। এর প্রতিটিতে দলটির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং দলটির দ্বিতীয় প্রধান সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ছবি চোখে পড়ে।

bnp

বিএনপির প্রধান এ কার্যালয়ের প্রবেশদ্বারে যুবদলের নতুন কমিটিতে ঠাঁই পাওয়া নুরুল ইসলাম নয়নের ছবিসহ একটি ফেস্টুন সবার নজর কেড়েছে। এতে নুরুল ইসলাম নয়নকে যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। কার্যালয়ে উপস্থিত কর্মচারী ও নেতাকর্মীরা জানান, নয়নের অনুসারী সবুজবাগ থানার মো. সিরাজুল ইসলাম (সবুজ খান) ফেস্টুনটি এখানে টাঙিয়েছেন।

শুধু নুরুল ইসলাম নয়ন নন, নয়াপল্টনের বিভিন্ন ভবনে টাঙানো ব্যানার-ফেস্টুনে যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকা, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়সহ বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতার বড় বড় ছবি চোখে পড়ে। এসব ব্যানার-ফেস্টুনে দলের শীর্ষ ওই তিন নেতার ছবি উপরের দিকে ছোট করে উপস্থাপন করা হয়েছে।

bnp

বিএনপির শীর্ষ নেতাদের এভাবে উপস্থাপন নিয়ে অনেক নেতাকর্মী জাগো নিউজের কাছে ক্ষোভ প্রকাশ করলেও কেউ নাম প্রকাশ করতে চাননি। তারা জানান, এভাবে তো দল চলতে পারে না। রাজপথের আন্দোলনে কাউকে দেখা না গেলেও ব্যানার-ফেস্টুনের মাধ্যমে সরব থাকেন তারা। এমনও দেখা গেছে, দলের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এমনকি দলের চেয়ারপারসন ম্যাডাম খালেদা জিয়াও ব্যানার-ফেস্টুনে উপেক্ষিত থাকেন। এভাবে তো দল ও নেত্রীর প্রতি আনুগত্য প্রদর্শন করা যায় না। দল ও নেত্রীর প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থাকলে রাজপথে অন্য এক বিএনপিকে দেখত মানুষ।

এ বিষয়ে দলের শীর্ষ কয়েকজন নেতার কাছে জানতে চাইলে তারাও বিব্রত বোধ করেন। তারা বিষয়টি নিয়ে মহাসচিবের সঙ্গে কথা বলার অনুরোধ জানান।

bnp

সরেজমিনে দেখা গেছে, নয়াপল্টন এলাকার বিভিন্ন ভবনে টাঙানো অধিকাংশ ফেস্টুনই নুরুল ইসলাম নয়নের। এ নিয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও যায়নি। এমনকি তার মোবাইলে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়েও সাড়া পাওয়া মেলেনি।

নয়নের একসময়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত মোশাররফ হোসেন মুশুর কাছে তার সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, তার (নয়ন) সঙ্গে আমার কোনো যোগাযোগ নেই। তিনি স্বেচ্ছাসেবক দলের হয়ে কাজ করার চিন্তা করছেন বলে শুনেছি।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল এ প্রসঙ্গে জাগো নিউজকে বলেন, ‘আওয়ামী লীগসহ সব বড় দলে এমনটি দেখা যাচ্ছে। ব্যক্তিগত প্রচার নিয়ে সবাই ব্যস্ত।’ তিনি বলেন, রাজনৈতিক আদর্শ থেকে ব্যক্তি পরিচয় যখন বড় হয়ে যায়, তখন এমনটি হয়। ইদানিং এ প্রবণতা একটু বেশি বেড়েছে।

bnp

তিনি আরও বলেন, ‘মহাসচিব সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা দিয়েছিলেন, দলীয় কার্যালয় এবং এর আশপাশের ভবনে কোনো ব্যানার-ফেস্টুন টাঙানো যাবে না। শুধু দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান, চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ছবি থাকবে। সেই নির্দেশও উপেক্ষিত হচ্ছে। মহাসচিবের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে ফের পরামর্শ করা হবে এবং এ বিষয়ে আবারও সার্কুলার জারি করা হবে। আমার মনে হয় এটা করলে ভালো হবে।’

বিষয়টি নিয়ে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘বলেছিলাম দলীয় কার্যালয়ে তিনটি ছবি থাকবে। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান, চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের। এর বাইরে আর কোনো ছবি থাকবে না।’

নির্দেশনা মানা হচ্ছে না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অফিসের পাশে আর তো কারও ছবি নেই। তবে আশপাশে ছবি থাকলে আমাদের কিছু করার নেই।’

এমএম/এমএআর/এমএস

আপনার মন্তব্য লিখুন...