ভাষাসৈনিকদের নামে সড়ক, জানেন না অধিকাংশ মানুষ

প্রদীপ দাস
প্রদীপ দাস প্রদীপ দাস , নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০৭ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

ধানমন্ডি ৫ নম্বর সড়কের ঢাকা সিটি করপোরেশন অনুমোদিত নাম ‘ভাষাসৈনিক আবুল কালাম সামসুদ্দিন সড়ক’। সড়কটির ধানমন্ডি লেক সংলগ্ন শেষ প্রান্তে রিকশা নিয়ে যাত্রীর অপেক্ষায় মো. বাদশা। ঢাকা মহানগরীতে তার প্রায় ৫০ বছর ধরে বাস। প্রায় ২০ বছর ধরে রিকশা চালান তিনি। এই দীর্ঘ সময়ের জীবনে ‘ধানমন্ডি ৫ নম্বর’ সড়কের অনুমোদিত নাম যে ‘ভাষাসৈনিক আবুল কালাম সামসুদ্দিন সড়ক’ তা তিনি কখনও শোনেননি। কোনো যাত্রী তাকে কখনও ভাষাসৈনিক সামসুদ্দিন সড়কে যাবেন- এমন প্রশ্ন করেননি। তিনি বলেন, ‘কিছুক্ষণ আগেও একজন যাত্রী বললেন, ৫ নম্বর সড়কের মাথায় যাবেন। তাকে নিয়ে আসছি।’

কেবল রিকশাচালক বাদশা নন, রাজধানীতে ১০টির বেশি সড়কের নাম ভাষাসৈনিকদের নামে। অথচ সেসব সড়ক যে ভাষাসৈনিকদের নামে তা ৭৫ শতাংশ মানুষই জানে না।

সিটি করপোরেশনের তথ্যানুযায়ী, ধানমন্ডি ৭ নম্বর সড়কের অনুমোদিত নাম ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিন সড়ক, ধানমন্ডি ৬ নম্বর সড়কের অনুমোদিত নাম ভাষাসৈনিক আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ সড়ক এবং ধানমন্ডি ৫ নম্বর সড়কের অনুমোদিত নাম ভাষাসৈনিক আবুল কালাম সামসুদ্দিন সড়ক।

jagonews24

সড়ক তিনটি এই তিন ভাষাসৈনিকের নামে তা জানেন কিনা- সড়কগুলোর ওপর দাঁড়িয়ে জাগো নিউজের পক্ষ থেকে এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল ১২ জন স্থানীয়, পান-বিড়ি বিক্রেতা, মুদি দোকানি, রিকশাচালক, শবজি বিক্রেতা, মুচি, ট্রাফিক সার্জেন্ট ও চায়ের দোকানিকে। তার মধ্যে সড়কটি যে ভাষাসৈনিকের নামে তা একদমই জানেন না ৯ জন, যা ৭৫ শতাংশ; সড়কটি ভাষাসৈনিকের নামে জানেন, কিন্তু কার নাম তা জানেন না একজন বা ৮ শতাংশ এবং দুজন জানেন বা ১৭ শতাংশ। তাদের মধ্যে ১১ জনই সড়ক তিনটিকে ‘ধানমন্ডি ৫’, ‘ধানমন্ডি ৬’ ও ‘ধানমন্ডি ৭’ নামে চেনেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, সালাম’স কিচেন সংলগ্ন ধানমন্ডি ৭ নম্বর সড়কের একপ্রান্তে চা ও হালকা নাস্তার খাবারদাবারের দোকানে বসা প্রায় ৩০ বছর বয়সী মো. ইসমাইল। চা বিক্রি নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করা ইসমাইল জাগো নিউজকে বলেন, ‘এই সড়কের নাম ধানমন্ডি ৭ নম্বর। এই সড়কের নাম ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিন সড়কও।’

ভাষাসৈনিকের নামে যে এই সড়কটি তা কীভাবে জানলেন- জানতে চাইলে বলেন, ‘সামনে (ঢাকা ব্যাংক) সড়কের নামের নামফলক আছে। সেটা দেখে জানি। কেউ আমাকে বলেনি।’

jagonews24

এই সড়কের ঢাকা ব্যাংকের সামনে বেশ বড় করে ভাষাসৈনিক আব্দুল মতিনের নামফলক রয়েছে। তবে অন্য দুই সড়কে এত বড় করে নামফলক দেয়া নেই।

ভাষাসৈনিক আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ সড়কে যাত্রীর জন্য অপেক্ষা করছিলেন রিকশাচালক মো. ইউসুফ। এই সড়কের নাম কী জানতে চাইলে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘এটা ধানমন্ডি ৬ নম্বর সড়ক।’

এই সড়কের নাম ভাষাসৈনিক আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ সড়ক- এ কথা জানানোর পর তিনি বলেন, ‘এর অন্য নাম থাকলে আমি জানি না। ২০ থেকে ২২ বছর ধরে ঢাকায় আছি। এই নাম শুনি নাই।’

jagonews24

এই সড়কের ইউনিভার্সিটি উইমেনস ফেডারেশন কলেজ মোড়ে দায়িত্বরত এক সার্জেন্টকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জাগো নিউজকে জানান, এটা ধানমন্ডি ৬ নম্বর সড়ক। ভাষাসৈনিক আব্দুর রশিদ তর্কবাগিশ সড়ক কি এটাই? জবাবে তিনি বলেন, ‘জানি না।’

ভাষাসৈনিক আবুল কালাম সামসুদ্দিন সড়কের এক মোড়ে সবজি বিক্রি করছিলেন মো. রমজান মিয়া। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘এটা ধানমন্ডি ৫ নম্বর সড়ক। এ সড়কটা একজন ভাষাসৈনিকের নামেও। তার নাম মনে হয়...তর্কবাগিশ (যদিও সিটি করপোরেশনের মতে এটি আবুল কালাম সামসুদ্দিন)।’

এই সড়কের এক মুদি দোকানি বলেন, ‘এইডার (এটার) নাম ধানমন্ডি ৫ নম্বর রোড। এইডাই জানি, আর কিছু জানি না।’

পিডি/ইএ/এসএইচএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]