রাজশাহীর কাছে হেরে মাইলফলক গড়া হল না কুমিল্লার

মুনওয়ার আলম নির্ঝর
মুনওয়ার আলম নির্ঝর , স্পোর্টস রিপোর্টার চট্টগ্রাম থেকে
প্রকাশিত: ১১:১৩ এএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৭
রাজশাহীর কাছে হেরে মাইলফলক গড়া হল না কুমিল্লার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নতুন মাইলফলক গড়ার হাতছানি ছিল তামিম ইকবালের দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সামনে। রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে আজকের ম্যাচটি জিততে পারলেই বিপিএলে টানা ছয় ম্যাচ জেতার রেকর্ড গড়তে পারতো দলটি; কিন্তু কুমিল্লাকে বিরল এই রেকর্ডটি গড়ার সুযোগ দিল না রাজশাহী কিংস।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে কুমিল্লার সামনে ১৮৬ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় রাজশাহী কিংস। এই রান তাড়া করতে নেমে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ১৯.১ ওভারেই ১৫৫ রানে অলআউট হয়ে যায়। ফলে রাজশাহী কিংস ম্যাচটি জিতে নিয়েছে ৩০ রানের ব্যবধানে।

জয় এবং নতুন মাইলফলক গড়ার জন্য ১৮৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। মোহাম্মদ সামির পেস এবং মেহেদী হাসান মিরাজের ঘূর্ণি তোপে পড়ে উইকেট হারান পাকিস্তানি ফাখর জামান (২) এবং নিয়মিত পারফর্ম করা ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস (০)।

দলীয় ৪ রানে ২ উইকেট হারিয়ে যখন ধুঁকছিল কুমিল্লা, তখন দলের হাল ধরেন তামিম ইকবাল এবং শোয়েব মালিক জুটি। দু’জনে মিলে গড়েন ৮৭ রানের এক চমৎকার জুটি। এ দু’জনের জুটির ওপর ভর করে জয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছিল কুমিল্লা।

তবে শোয়েব মালিক ২৬ বলে ব্যক্তিগত ৪৫ রানে ডোয়াইন স্মিথের হাতে রিটার্ন ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলেই বিপদে পড়ে যায় কুমিল্লা। ৫টি বাউন্ডারি আর ২টি ছক্কায় নিজের ৪৫ রানের ইনিংসটি সাজান শোয়েব মালিক। তিনি ফিরে গেলেও একপাশ আগলে দলকে কাংখিত লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করেন তামিম; কিন্তু তিনিও আউট হয়ে যান ৬৩ রান করে। ৪৫ বলে খেলা এই মারমুখি ইনিংসটি তামিম সাজান চারটি বাউন্ডারি এবং তিনটি ছক্কার সাহায্যে।

এরপর কুমিল্লার আর কোন ব্যাটসম্যানই রাজশাহীর বোলারদের সামনে দাঁড়াতে পারেননি। তামিম-শোয়েবছাড়া কুমিল্লার হয়ে জস বাটলার ১৫ এবং হাসান আলি করেন ১৬ রান।

পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ সামির হাতেই মূলতঃ শেষ হয়ে যায় কুমিল্লার ইনিংস। ৪ ওভার বল করে মাত্র ৯ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন এই পাকিস্তানি। সামিছাড়াও কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান এবং ডোয়াইন স্মিথ নেন ২টি করে উইকেট। জেমস ফ্রাঙ্কলিন এবং মেহেদী হাসান মিরাজ নেন একটি করে উইকেট। এই পরাজয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে ওঠা হল না কুমিল্লার। ৭ ম্যাচ শেষে ৫ জয়ে তাদের পয়েন্ট ১০। ৮ ম্যাচে ১১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে খুলনা টাইটান্স। কুমিল্লা দুইয়ে। কুমিল্লাকে হারালেও টেবিলের ৭ম স্থানে রয়েছে রাজশাহী কিংস।

এমএএন/আইএইচএস/জেআইএম