বিপদের মুখে মাহমুদউল্লাহর হাফসেঞ্চুরি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫৫ পিএম, ২৭ জানুয়ারি ২০১৮

২২ রানে নেই ৩ উইকেট। দল চরম সংকটে। মিরপুরে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এমন সংকটের সময় হাল ধরেছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৮তম হাফসেঞ্চুরিও তুলে নিয়েছেন অভিজ্ঞ এ ব্যাটসম্যান। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩১.২ ওভারে ৫ উইকেটে ১০০ রান।

মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে মুশফিকুর রহীমের জুটিটি বড় স্বপ্ন দেখাচ্ছিল বাংলাদেশকে। তবে দলকে পুরোপুরি বিপদমুক্ত না করেই বিলাসী এক শট খেলে বসলেন মুশফিক। ধনঞ্জয়ার বলটি সুইপ করতে গিয়ে তুলে দিলেন উপুল থারাঙ্গার হাতে।

৪০ বলের ধৈর্যশীল ইনিংসে মাত্র ১টি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন মুশফিক। করেছেন ২২ রান। কিন্তু দলের বিপদের মুহূর্তে এমন একটি ইনিংস খেললেও দায়িত্ব নিয়ে শেষটা করে যেতে পারলেন না উইকেটরক্ষক এ ব্যাটসম্যান। তৃতীয় উইকেটে মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে তার জুটিটি ছিল ৫৮ রানের।

মুশফিক ফেরার পর বেশিদূর এগোতে পারেননি মেহেদী হাসান মিরাজও। ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সুযোগ পেয়ে ১৪ বলে ৫ রান করে ধনঞ্জয়ার ফিরতি ক্যাচ হয়েছেন তিনি।

চোটের কারণে সাকিব আল হাসানের ব্যাটিংয়ে নামা নিয়ে অনিশ্চয়তা। ফাইনালের গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ে শুরুতেই আরেক ব্যাটিং ভরসা তামিম ইকবালের উইকেটটিও হারিয়েছে বাংলাদেশ। টাইগার ওপেনার অনেকটা সময় বল খরচ করে সেট হতে চেয়েছেন। কিন্তু শেষপর্যন্ত লোভ সামলাতে পারেননি।

দুষ্মন্ত চামিরার বাউন্সি এক ডেলিভারি পুল করতে গিয়ে বল বাতাসে ভাসিয়ে দিয়েছেন তামিম। ১৮ বলে মাত্র ৩ রান করে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার ক্যাচ হয়ে ফিরেছেন তিনি।

এরপর ১০ রান করে রানআউটের ফাঁদে পড়েছেন মোহাম্মদ মিঠুন। বিপদে আরও একবার ব্যর্থ সাব্বির রহমান। দুষ্মন্ত চামিরাকে পুল করতে গিয়ে গুনারত্নের ক্যাচ হয়ে ফিরেছেন তিনি। ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান করেন মাত্র ২ রান।

এমএমআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]