স্যামসনের ছক্কা ঝড়

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৩২ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮
স্যামসনের ছক্কা ঝড়

বিরাট কোহলির চেহারাটা হয়েছিল দেখার মত। বার বার বোলার পরিবর্তন করছিলেন। নানা কৌশলে বোলারদের বলে দিচ্ছেন বল করার জন্য; কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হচ্ছিল না। সাঞ্জু স্যামসনকে থামানোর কোনো মন্ত্রই শেষ পর্যন্ত আবিস্কার করা গেলো না। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বোলারদের রীতিমত শাসন করে ১০টি ছক্কার মার মারলেন রাজস্থান রয়্যালসের এই ব্যাটসম্যান।

ব্যাঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে ছক্কার পর ছক্কা হাঁকিয়ে গেলেন ত্রিবান্দ্রামে জন্ম নেয়া এই ব্যাটসম্যান। ৪৫ বল মোকাবেলা করে স্যামসন শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ৯২ রানে। ১০ ছক্কার সঙ্গে ২টি বাউন্ডারি মারেন স্যামসন। প্রথম আট ছক্কা পর্যন্ত তো কোনো বাউন্ডারিই মারতে দেখা যায়নি তাকে। বল ব্যাটে লাগাচ্ছেন তো, সোজা সেটি গিয়ে আছড়ে পড়ছে সীমানার ওপারে।

সাঞ্জু স্যামসনের ছক্কা ঝড়ে টস হেরে ব্যাট করতে নামা রাজস্থান রয়্যালস ৪ উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করেছে ২১৭ রান। এবারের আইপিএলে যা সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। শেষ ৫ ওভারেই সাঞ্জ স্যামসনের ঝড়ে রান উঠেছে ৮৮। এই ৫ ওভারে ১৭.৬০ রান রেটে রান তুলেছিলেন তিনি।

আফসোস স্যামসনের জন্য। আর কয়েকটি বল পেলে হয়তো এবারের আসরের প্রথম সেঞ্চুরিটা করেই ফেলতে পারতেন তিনি। ছক্কার রেকর্ডেও হয়তো ভাগ বসাতে পারতেন তিনি। যদিও আইপিএলের ইতিহাসের সর্বোচ্চ ছক্কার রেকর্ড ক্রিস গেইলের। এক ম্যাচে মোট ১৭টি ছক্কা মেরেছিলেন তিনি। স্যামসন রয়েছেন এক ম্যাচে ছক্কা মারার রেকর্ডে ৯ নম্বরে।

তবে রাজস্থানের হয়ে ইতিহাস গড়েছেন তিনি। রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে সর্বোচ্চ ছক্কার মারই মেরেছেন তিনি। এর আগের রেকর্ড ছিল ইউসুফ পাঠানে। ২০১০ সালে মুম্বাইয়ের বিপক্ষে ৮ ছক্কা মেরেছিলেন তিনি।

আইএইচএস/পিআর