এবার বল টেম্পারিংয়ে চান্দিমালের শাস্তি, শঙ্কায় হাথুরু

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:১৪ এএম, ২০ জুন ২০১৮

বল টেম্পারিং বিতর্ক যেন ক্রিকেটের পিছু ছাড়ছেই না। মাসকয়েক আগে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে বড়সড় শাস্তির সম্মুখীন হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার তিন ক্রিকেটার। সেই ঘটনা থেকে শিক্ষা না নিয়ে বল টেম্পারিংয়ের নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন লংকান ক্রিকেটার দিনেশ চান্দিমাল। ফলে শাস্তি পেতে হল তাকেও।

সদ্য সমাপ্ত সেইন্ট লুসিয়া টেস্টের দ্বিতীয় দিনে নিয়মের বাইরে গিয়ে বলের আকার পরিবর্তন করেন চান্দিমাল। যা ধরা পড়ে যায় ম্যাচের দুই আম্পায়ারের চোখে। ফলে তাৎক্ষণিকভাবে শ্রীলংকান দলকে ৫ রান জরিমানা করেন আম্পায়ারদ্বয় এবং অভিযোগ ঠুকে দেন ম্যাচ রেফারির দরবারে।

ম্যাচ শেষে বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগ অস্বীকার করেন চান্দিমাল। ফলে বাধ্য হয়েই আনুষ্ঠানিক শুনানির ব্যবস্থা করেন ম্যাচের রেফারি জাভাগান শ্রীনাথ। ম্যাচের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় দ্বিতীয় দিন বিকেলে লাহিরু কুমারার হাতে বল দেয়ার আগে পকেট থেকে কিছু একটা বের করে মুখে দেন চান্দিমাল। পরে সেই লালা ব্যবহার করে বলের আকৃতি পরিবর্তন করেন লংকান অধিনায়ক।

শ্রীনাথের শুনানিতে চান্দিমাল স্বীকার করেন যে মুখে কিছু একটা নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেটি কি ছিল তা মনে করতে পারেননি লংকান অধিনায়ক। তার এই ভাষ্য মনঃপুত হয়নি শ্রীনাথের। ফলে ম্যা ফি’র পুরোটা জরিমানা করা হয় তাকে এবং সিরিজের তৃতীয় টেস্ট থেকে নিষিদ্ধ করা হয় লংকান অধিনায়ককে।

তবে শুধু এটুকুতেই পার পেয়ে যাচ্ছেন না চান্দিমাল। বড়সড় শাস্তি অপেক্ষা করছে তার জন্য। শুধু চান্দিমাল একাই নন দলের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে এবং ম্যানেজার আসাঙ্কা গুরুসিনহার জন্যও অপেক্ষা করছে বড় ধরনের শাস্তি। ম্যাচের দ্বিতীয় দিন ৫ রান জরিমানার প্রতিবাদের তৃতীয় দিন প্রায় ২ ঘণ্টা পরে মাঠে নামে শ্রীলংকা।

এই ঘটনা ক্রিকেটীয় চেতনার এবং নিয়মের পরিপন্থী হিসেবে গণ্য করছে আইসিসি। এমন ঘটনার জন্ম দেয়ায় আইসিসির পক্ষ থেকে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে এই তিনজনকে। নিজেদের পক্ষে কোন যৌক্তিক কারণ দেখাতে না পারল কমপক্ষে ২-৪ টেস্ট নিষিদ্ধ হবেন চান্দিমাল, হাথুরুসিংহে এবং গুরুসিনহা।

এসএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :