৩১ জনের দলেও জায়গা হলো না নাসির-তাসকিনের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৩ পিএম, ১৪ আগস্ট ২০১৮

ইনজুরিতে পড়েছেন দীর্ঘদিন হলো। বছরের শুরুতে ত্রিদেশীয় সিরিজের দলে ছিলেন তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছেন সর্বশেষ ম্যাচ। যদিও টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি খেলেছেন তারও অনেক বেশি দিন আগে। ২০১৬ বিশ্বকাপে খেলেছেন সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। ২০১৭ সালে সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেছেন টেস্ট ম্যাচ।

বলা হচ্ছিল নাসির হোসেনের কথা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনুপস্থিতির পরিমাণ যাই হোক, দুর্দান্ত পারফরমার ছিলেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। তার নেতৃত্বেই সর্বশেষ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে খেলেছেন মাশরাফির মত ক্রিকেটার। নেতৃত্ব দিয়ে তিনি আবাহনীকে শিরোপা উপহার দিয়েছিলেন। প্রিমিয়ার লিগে যেমন নেতৃত্ব, তেমনি ব্যাট এবং বল হাতেও ছিলেন অসাধারণ সফল।

কিন্তু এরপরই গোড়ালির ইনজুরিতে পড়েন তিনি। এরপর যে হারিয়ে গেলেন তার আর কোনো খোঁজ নেই। আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ গেলো, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে গেলো পূর্ণাঙ্গ সফর। নাসির হোসেনের নামই নেই কোথাও। এবার এশিয়া কাপের জন্য ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দল ঘোষণা করা হলো সেখানেও নাম নেই এই অলরাউন্ডারের। মূলতঃ তার কী অবস্থা সেটা পর্যন্ত জানা যাচ্ছে না। যদিও এর মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ব্যক্তিগত কিছু বিষয় নিয়ে জোরালো গুঞ্জন উঠেছিল।

ইনজুরির কারণে দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে পেসার তাসকিন আহমেদ। এক সময় নিয়মিত থাকা এই পেসার দীর্ঘদিন হলো দলের বাইরে। সর্বশেষ তিনি ছিলেন নিদাহাস ট্রফির টি-টোয়েন্টি দলে। এরপর থেকে ইনজুরির মধ্য দিয়েই তার কাটছে সময়। সম্প্রতি কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠলে তাসকিনকে নেয়া হয় ‘এ’ দলে। কিন্তু আয়ারল্যান্ড গিয়ে আবারও ইনজুরিতে পড়েন তিনি। ফিল্ডিং করতে গিয়ে হাতের ক্ষত ফেটে যায়। সেই ইনজুরি নিয়েই দেশে ফিরে আসেন ডান হাতি এই পেসার। এখন রয়েছেন রিহ্যাবে। সুতরাং, এশিয়া কাপের দলে খেলার মত উপযুক্ততা নেই তার। এ কারণে, ৩১ জনের দলেও জায়গা পেলেন না তাসকিন।

৩১ জনের দলে ঠাঁই মেলেনি আরেক পেসার শফিউল ইসলামেরও। গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি দলে ছিলেন শফিউল। তবে ওই সফরে ভালো পারফরম্যান্স দেখাতে পারেননি তিনি। এরপর দল থেকে বাদ পড়ে যান। এরপর থেকে রয়েছেন দলের বাইরে।

‘এ’ দলের হয়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করার কারণে স্বাভাবিকভাবেই ওয়ানডে দলের এই প্রাথমিক স্কোয়াডে ডাক পেলেন মুমিনুল হক সৌরভ। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে অসাধারণ ব্যাটিং করেছিলেন মুমিনুল। এক ম্যাচে তো তার ব্যাট থেকে এসেছিল ১৮২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস।

৩১ সদস্যের এই দলে ১১জন রয়েছেন, যাদের এখনও ওয়ানডে অভিষেক হয়নি। এই ১১জন হলেন, আবু হায়দার রনি, নাজমুল ইসলাম অপু, আরিফুল হক, কামরুল ইসলাম রাব্বি, আবু জায়েদ রাহি, নাজমুল হোসেন শান্ত, শরিফুল ইসলাম, নাঈম হাসান, জাকির হাসান, সৈয়দ খালেদ আহমেদ ও ফজলে রাব্বি আহমেদ।

এদের মধ্যে তিনজন হলেন একেবারেই নতুন। তারা এই প্রথম জাতীয় দলের কোনো ক্যাম্পে ডাক পেলেন। এই তিনজন হলেন, দুই পেসার শরিফুল ইসলাম, সৈয়দ খালেদ হোসেন এবং মিডল অর্ডার ফজলে রাব্বি আহমেদ।

এশিয়া কাপের জন্য ঘোষিত ৩১ সদস্যের প্রাথমিক দল

মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, সাইফ উদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, লিটন কুমার দাস, আবু হায়দার রনি, নাজমুল ইসলাম অপু, মেহেদী হাসান মিরাজ, মুমিনুল হক সৌরভ, নুরুল হাসান সোহান, রুবেল হোসেন, আরিফুল হক, আবু জায়েদ রাহী, নাজমুল হোসেন শান্ত, শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসান, কামরুল ইসলাম রাব্বি, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, মোহাম্মদ জাকির হাসান, সানজামুল ইসলাম, মোহাম্মদ মিথুন, ফজলে রাব্বি মাহমুদ।

আইএইচএস/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]