ফাস্ট বোলার হতে চেয়েছিলেন মুরালিধরন!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

অফস্পিন বোলিংয়ে তিনি কিংবদন্তি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৩৪৭ উইকেটের মালিক মুত্তিয়াহ মুরালিধরন। যাকে আইডল মেনে বেড়ে উঠেন নতুন প্রজন্মের অফস্পিনাররা। সেই মুরালিই নাকি অফস্পিন বোলিংটাকে এড়িয়ে যেতে চেয়েছিলেন। হতে চেয়েছিলেন ফাস্ট বোলার!

হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও খবরটা সত্যি। মুরালিধরন নিজেই জানিয়েছেন এমনটা। দুবাইয়ে 'সালাম ক্রিকেট'-এর ষষ্ঠ আসরে কথা বলতে গিয়ে এমন অবাক করা তথ্য দিয়েছেন লঙ্কান স্পিন কিংবদন্তি। ক্যারিয়ারের শুরুতে শুধু ফাস্ট বোলার নয়, লেগস্পিনার হিসেবেও নাকি চেষ্টা করেছিলেন তিনি।

৮০০ উইকেট নিয়ে এখন পর্যন্ত টেস্ট ক্রিকেটের সফলতম বোলার মুরালিধরন। অফস্পিন বোলিং নিয়ে দোটানায় থাকার সময় ভারতের অধিনায়ক আজহারউদ্দিন এবং কপিল দেবের শরণাপন্নও হয়েছিলেন তিনি। সেই স্মৃতি নিয়ে সাবেক লঙ্কান স্পিনার বলেন, '১৯৯০ সালে ভারতে প্রথম বিদেশ ট্যুরে গিয়েছিলাম। আমি উইকেট পেলেও বেশ মার খাচ্ছিলাম। তখন আমি আজহার ভাইয়ের রুমে যাই, তাকে জিজ্ঞেস করি কিভাবে ধারাবাহিক হওয়া যায়। আমি কপিল দেবের কাছেও গিয়েছিলাম। তিনি বলেন, তুমি কতটা টার্ন করাতে পারো, সেটা ব্যাপার নয়। যদি তুমি সোজা জায়গায় বল করতে না জানো, তবে সেটা স্পিন হবে না।'

নিজের বোলিংয়ে উন্নতি আনতে পাকিস্তানের অফস্পিনার সাকলাইন মুশতাককেও অনুসরণ করা শুরু করেন মুরালি। এ নিয়ে তিনি বলেন, 'আমি সাকলাইন মুশতাককে দেখি। তিনি দুসরা করতে পারতেন। আমি বুঝতাম না। পরে আমি অনুশীলন করতে থাকি। কোনো একভাবে কব্জির ব্যবহারটা শিখে যাই।'

ক্যারিয়ারের শুরুতে স্পিন বোলিং করতে এসে কতটা সংগ্রাম করতে হয়েছে, জানিয়ে মুরালি বলেন, 'যখন আমি বোলিং শুরু করি, জানতাম না কিভাবে তাদের (ভারত আর পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের) আউট করতে হবে। তাদের ডিফেন্স খুব ভালো ছিল। আমি পাঁচ উইকেট পেতাম, কিন্তু তারা আমার বিরুদ্ধে রান করে ফেলতো। তারা স্পিনের বিপক্ষে খুবই ভালো ছিল।'

এমএমআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :