নারী টি-২০ বিশ্বকাপে আইসিসির অংশীদার উবার

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:২৭ পিএম, ০৯ নভেম্বর ২০১৮

ওয়েস্ট ইন্ডিজে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিতব্য নারীদের একক আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপে সহায়তা করতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) অংশীদার হলো বিশ্বের প্রথম অন ডিমান্ড রাইড শেয়ারিং কোম্পানি উবার। বিশ্বব্যাপী নারীর ক্ষমতায়নে বৃহত্তর ক্রিকেট সম্প্রদায়কে সম্পৃক্ত করায় প্রতিষ্ঠান দুটির মূল লক্ষ্য।

এ অংশীদারিত্বের মধ্যে থাকবে- নারী টি-২০ বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দেশগুলোতে ‘অন দ্য গ্রাউন্ড অ্যাক্টিভেশন’, নারী ক্রিকেটারদের অনুপ্রেরণামূলক গল্প নিয়ে ছয়টি অংশের ডিজিটাল চলচ্চিত্র সিরিজ তৈরি, ওয়াচ পার্টি এবং খেলার দিনগুলিতে ‘উবার’ও ‘উবার ইটস’এর মাধ্যমে প্রোমোশনের সুবিধা। নারীদের খেলাধুলায় অংশগ্রহণ ও ক্রিকেট একাডেমিতে যোগদানের বিষয়টিকে উৎসাহ দিতে ব্যস্ত থাকবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো ছাড়াও বিভিন্ন সংগঠন, স্পন্সরকারী প্রতিষ্ঠান, ক্রিকেটারদের পরিবার ও ভক্তরা।

এ বিষয়ে আইসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডেভিড রিচার্ডসন বলেন, ‘উবার একটি বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত ব্র্যান্ড এবং আমরা বিশ্বজুড়ে নারীর ক্ষমতায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। খেলা হিসাবে নারীদের ক্রিকেটকে আমরা অনেক দূর এগিয়ে নিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। এটি আমাদের কৌশলগুলোর এক ভিত্তি তৈরি করবে যা আগামী বছরের শুরুতে চালু হবে। সত্যিকার অর্থেই এ অংশীদারিত্ব আমাদের পারস্পরিক মূল্যবোধের সঙ্গে মিলে যায়। তাছাড়া উবারের পরিকল্পনাগুলোও চমৎকার এবং আমাদের উদ্যোগের সঙ্গে পরিপূরক। স্পন্সরশিপ বলতে যেমন ধারণা করা হয় সেটা একদম বদলে যাচ্ছে এবং এই অংশীদারিত্ব সেটারই প্রতিফলন। এটি নারীদের ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার, আমাদের খেলাধুলার গল্পকে আরও বিস্তৃতভাবে বলার এবং আমাদের খেলার মধ্যে ভবিষ্যৎ তারকা তৈরি করার একটি যৌথ উদ্যোগ।’

উবারের চিফ ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস অফিসার ব্রুকস এন্টউইসেল বলেন, ‘আইসিসি নারী টি-২০ বিশ্বকাপের এবারের আয়োজনে প্রথমবারের মতো এককভাবে রাইড শেয়ারিং এবং খাদ্য পৌঁছে দেয়ার প্ল্যাটফরম হিসেবে আইসিসির সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আমরা আনন্দিত। বিশ্বজুড়ে নারীদের একটি বিশাল অংশকে সংগঠিত ও উৎসাহ দিয়ে আমরা ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে চাই। আইসিসি নারী টি-২০ বিশ্বকাপ সেক্ষেত্রে একটি উল্লেখযোগ্য প্রদর্শনী হিসেবে ভূমিকা পালন করবে। খেলাধুলার প্রতি নারীদের আরও বেশি উৎসাহ দিতে ও সম্পৃক্ত করতে এবং তাদের জন্য আরও বেশি সুযোগ সৃষ্টি করে আগামী দিনের নেতৃত্ব তৈরি করার লক্ষ্যে আইসিসির সঙ্গে যৌথভাবে সহযোগিতা করতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

২০১৮-১৯ সালের ক্রিকেট পঞ্জিকাবর্ষ অনুযায়ী, ২০১৮ সালের ৯ থেকে ২৪ নভেম্বরে আইসিসি নারী টি-২০ বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। প্রথমবারের মতো দশটি দলের অংশগ্রহণে এ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে আয়োজিত হচ্ছে। দশ দলের এ লড়াইয়ে অস্ট্রেলিয়া, বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, ভারত, আয়ারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলংকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ অংশ নেবে।

আরএম/এনডিএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :