‘বিপজ্জনক’ বাংলাদেশের বিপক্ষে সতর্ক নিউজিল্যান্ড

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:১৬ পিএম, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ওয়ানডে ক্রিকেটে বরাবরই দারুণ খেলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে নিজেদের দিনে যেকোনো দলকে হারানোর ক্ষমতা রয়েছে মাশরাফি-সাকিবদের। আর প্রতিপক্ষ যদি হয় নিউজিল্যান্ড তবে যেন সাহসটা বেড়ে যায় আরও কয়েকগুণ।

পরিসংখ্যান জানাচ্ছে জিম্বাবুয়ে ব্যতীত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই সবচেয়ে ভালো জয়ের হার বাংলাদেশের। এখনও পর্যন্ত তাদের বিপক্ষে ৩১ ম্যাচ খেলে ১০টিতেই জয় পেয়েছে টাইগাররা। ২০১০ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত সময়ে কিউইদের বিপক্ষে টানা ৭ ওয়ানডে জেতার রেকর্ড রয়েছে বাংলাদেশের। যা নেই জিম্বাবুয়ে ব্যতীত অন্য কোনো দলের সঙ্গে।

এছাড়াও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সবশেষ দুই ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। ২০১৭ সালে আয়ারল্যান্ডের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজে এবং একই বছর ইংল্যান্ডের মাটিতে চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। জয়ের এ ধারাকে টানা তিন ম্যাচে পরিণত করতেই আগামীকাল (বুধবার) সকালে নিউজিল্যান্ডের নেপিয়ারে স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামবে টাইগাররা।

বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা বিপিএল খেলে খানিক ক্লান্ত হলেও তাদের সঙ্গে রয়েছে জিম্বাবুয়ে এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টানা তিনটি ওয়ানডে সিরিজ জয়ের সুখস্মৃতি। অন্যদিকে ঘরের মাঠেই ভারতের কাছে ১-৪ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ হেরে যাওয়া নিউজিল্যান্ড রয়েছে নিজেদের হারিয়ে খোঁজার মিশনে।

বুধবারের ম্যাচে নামার আগে তাই ভীষণ সতর্ক নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। ম্যাকলিন পার্কে দলের অনুশীলনের ফাঁকে বাংলাদেশ দলকে বিপজ্জনক উল্লেখ করে কিউই অলরাউন্ডার টড অ্যাস্টল বলেন, ‘আমি সবসময়ই মনে করি তারা বিপজ্জনক দল। তারা নিশ্চিতভাবেই ভালো রান করতে পারে। এছাড়া তাদের স্পিনের বিপক্ষে এটা বেশ কঠিন চ্যালেঞ্জ হবে বলে মনে করি । দেখতে হবে আমরা তাদের কতটা পরীক্ষা নিতে পারি এবং চাপে ফেলে ম্যাচটা জিততে পারি কি-না।’

ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডেতে হারলেও তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ঠিকই ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল নিউজিল্যান্ড। সে সিরিজের ইতিবাচক দিকগুলো বাংলাদেশের বিপক্ষেও কাজে লাগানোর কথা জানান ৩২ বছর বয়সী এ লেগস্পিনিং অলরাউন্ডার।

অ্যাস্টল বলেন, ‘ছেলেরা মাঠে নামতে মুখিয়ে রয়েছে। (ভারতের বিপক্ষে) দারুণ একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর ছেলেরা এখন ভালো অবস্থায় রয়েছে। তবে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলা সহজ হবে না। তারা আমাদের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে হারিয়েছিল। তাই আমাদের এই জায়গায় প্রমাণের অনেক কিছুই রয়েছে। আশা করছি আমরা তাদের কঠিন পরীক্ষায় ফেলতে পারবো।’

এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :