ব্যাটসম্যান ছক্কা হাঁকালে উল্টো খুশি হন কুলদ্বীপ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:২৩ পিএম, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিশ্বের কোনো বোলারই আশা করেন না তার বোলিংয়ে হাওয়ায় ভাসিয়ে বিশাল সব ছক্কা হাঁকাবেন ব্যাটসম্যানরা। বরং আঁটসাঁট বোলিংয়ে ব্যাটসম্যানকে বেঁধে রাখতে পারলেই খুশি হন সবাই। কিন্তু ব্যতিক্রম ভারতীয় ক্রিকেট দলের বাঁহাতি চায়নাম্যান কুলদ্বীপ যাদভ।

তিনি উল্টো খুশিই হন যখন দেখেন কোনো ব্যাটসম্যান তাকে ছক্কা হাঁকিয়েছে। এর অবশ্য সুস্পষ্ট কারণও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি। বর্তমান যুগে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের আধিপত্যে প্রায়ই করা ব্যাটিং সহায়ক উইকেট। এমন পিচে ব্যাটসম্যানকে আউট করতে হলে তাকে প্রলোভন দেখানো ছাড়া উপায় থাকে না স্পিনারদের।

সে কাজটিই করতে ভালোবাসেন ২৪ বছর বয়সী কুলদ্বীপ। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘ব্যাটসম্যানকে নিজের মতো করে আটকানোই আমার লক্ষ্য। কোনো ব্যাটসম্যান যখন আমাকে ছক্কা হাঁকায় তখন আমি খুশি হই। কারণ এটি আমাকে উইকেট নেয়ার সুযোগ করে দেয়। বল টার্ন করানো এবং ফ্লাইট দিয়ে ব্যাটসম্যানকে বোকা বানানো আমার মূল শক্তি। আমি এই কাজটা নিয়মিতই করি।’

এসময় ফ্ল্যাট উইকেটে ভালো করার রহস্য জানিয়ে কুলদ্বীপ বলেন, ‘একটা কথা প্রচলিত রয়েছে যে উইকেট যতোই ফ্ল্যাট হোক, আপনি বলকে যতো ফ্লাইট করাবেন তত বেশি সম্ভাবনা থাকবে উইকেট পাওয়ার। আপনি যদি ফ্ল্যাট উইকেটে জোরের ওপর বোলিং করেন তবে সেটা ব্যাটসম্যানকেই সাহায্য করে। তাই আমি সবসময় চেষ্টা করি ল্যুপ দিয়ে বোলিং করার।’

এমন পরিকল্পনায় বোলিং করে এখনো পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশ সফল কুলদ্বীপ। কিছুদিন আগেই উঠে এসেছেন আইসিসির টি-টোয়েন্টির বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে। এখনো পর্যন্ত ৬ টেস্টে ২৪টি, ৩৯ ওয়ানডেতে ৭৭টি এবং ১৮ টি-টোয়েন্টিতে ৩৫টি উইকেট শিকার করেছেন উত্তর প্রদেশের এ স্পিনার।

এসএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :