চেয়ার ভেঙে তিরস্কৃত অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:২৯ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

খেলার মাঠে প্রায়ই ঘটে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। দুর্ভাগ্যবশত অনেক কিছুই আসে না নিজেদের পক্ষে। যেকোনো সাধারণ মানুষের পক্ষে সে সময় মেজাজ ধরে রাখা বেশ কঠিনই বটে। যা করতে পারেননি অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দলের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।

রোববার নিজেদের ঘরোয়া টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশ ফাইনালে মেজাজ হারিয়ে ড্রেসিংরুমের পাশে থাকা চেয়ার ভেঙেছেন ফিঞ্চ। যে কারণে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে তাকে তিরস্কৃত করে মৌখিক সতর্কতা দেয়া হয়েছে। তবে অপরাধের মাত্রা বিবেচনা করে কোনো জরিমানা করা হয়নি ফিঞ্চকে।

ঘটনা ফাইনাল ম্যাচে ফিঞ্চের দল মেলবোর্ন রেনেগেডসের ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারের শেষ বলের। স্ট্রাইকে থাকা ক্যামেরন হোয়াইট দারুণ এক স্ট্রেইট ড্রাইভ করলে তা পা দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করেন বোলার জ্যাকসন বার্ড। তা থামাতে না পারলেও বার্ডের বুটে লেগে বল আঘাত হানে স্ট্যাম্পে।

সঙ্গে সঙ্গে রানআউটের আপিল করে মেলবোর্ন স্টারসের ফিল্ডাররা। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় নন স্ট্রাইকে থাকা অ্যারন ফিঞ্চ তখন পপিং ক্রিজের বাইরে। ফলে দুর্ভাগ্যজনকভাবে মাত্র ১৩ রানে ফিরতে হয় তাকে। আউট হয়ে ফেরার পথে পুরো মাঠ শান্ত থাকলেও বাউন্ডারি সীমানা পেরিয়ে আর স্থির থাকতে পারেননি ফিঞ্চ।

টিভি ক্যামেরায় দেখা যায় ড্রেসিংরুমের পাশে রাখা একটি প্লাস্টিক চেয়ারে দুইবার ব্যাট দিয়ে আঘাত করেন তিনি। ফলে চেয়ারটি ভেঙে যায়। এ ঘটনাটিকে স্বাভাবিকভাবে নেয়নি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। তাই তাদের অধিনায়ককে ডেকে মৌখিত সতর্ক করে দিয়েছে তারা।

এ ঘটনার ব্যাখ্যায় ফিঞ্চ বলেন, ‘রানআউটটা মূলত আমার পুরো গ্রীষ্মের ইঙ্গিতই দেয়। বারবারই আমি দুর্ভাগা ছিলাম। তবে এমনটা হয়। এটা খুবই কঠিন বিশেষ করে যখন আপনি রান করতে মরিয়া। তবে এমনটা হয়, মেনে নিতেই হবে।’

এসএএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :