মোস্তাফিজের বিয়ে, অথচ নেই কোনো আয়োজন

আকরামুল ইসলাম
আকরামুল ইসলাম আকরামুল ইসলাম সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৬:১৪ পিএম, ২১ মার্চ ২০১৯

কোন আয়োজন ছাড়াই বিয়ে হচ্ছে কাটার মাস্টার খ্যাত জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার মোস্তাফিজুর রহমানের। আগামীকাল শুক্রবার জুমার নামাজের পর স্বল্প পরিসরে পারিবারিক আয়োজনে সম্পন্ন হতে যাচ্ছে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা।

বধূ সেজে যিনি মোস্তাফিজের ঘরে আসছেন সেই মেয়েটি মোস্তাফিজের নিকটাত্মীয়। মূলত মায়ের ইচ্ছাতেই বিয়ে করছেন মোস্তাফিজ। তবে তাদের দুজনের জানাশোনা রয়েছে আগে থেকেই।

মোস্তাফিজের মেজ মামা দেবহাটা উপজেলার হাদিপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মো. রওনাকুল ইসলাম বাবু। মামার সেজ মেয়ে সামিয়া পারভীন শিমুর সঙ্গে বিয়ে হচ্ছে মোস্তাফিজের। পারিবারিক আয়োজনেই সম্পন্ন হচ্ছে বিয়ে।

আরও পড়ুন : ৫ বছর প্রেমের পর অবশেষে বিয়ে মিরাজের>>

এদিকে তারকা এই ক্রিকেটারের বিয়ে নিয়ে নেই তেমন কোনো আয়োজন। বিয়ের আয়োজনে মেয়ের বাড়িতে চারটি টেবিলের একটি ছোট লাল  রঙের প্যানেল করা হয়েছে। এটুকু ছাড়া কোনো আয়োজন নেই।

Mustafz-sosshur

মামা রওনাকুল ইসলাম বাবু বর্তমানে মাছের ঘেরের ব্যবসা করছেন। চার ভাইবোনের মধ্যে সামিয়া পারভীন শিমু তৃতীয়। ২০১৬ সালে নলতা হাইস্কুল থেকে এসএসসি ও ২০১৮ সালে সখিপুর কেবিএ আহসানউল্লাহ কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইকোলজি বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষে অধ্যয়নরত।

বিয়ের আয়োজন নিয়ে জাগো নিউজের মুখোমুখি হন মোস্তাফিজের মেজ মামা সাবেক ইউপি সদস্য মো. রওনাকুল ইসলাম বাবু। তিনি মোস্তাফিজের হবু শ্বশুর।

আরও পড়ুন : বিয়ে করছেন মিরাজ-মুমিনুলও>>

আলাপকালে তিনি বলেন, ‘বিয়ে নিয়ে কোন আয়োজন নেই। এত বড় একটা খেলোয়াড়ের বিয়ে হচ্ছে, কত বড় আয়োজন হবে কিন্তু কোন আয়োজন নেই। কারণ মোস্তাফিজের মা অসুস্থ। এজন্যই মূলত কোন আয়োজন ছাড়া বিয়ে হচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘উভয় পরিবারের সম্মতিতেই বিয়েটা হচ্ছে। মোস্তাফিজের মা ও আমার মা দুজনই চায় এই বিয়েটা হোক। এরপর আমরা পারিবারিকভাবেই তাদের বিয়েতে একমত হয়েছি। মেয়ে এখনো ঢাকায়। আজ রাতেই বাড়ি ফেরার কথা রয়েছে।’ বিয়ের দিনক্ষণের বিষয়ে সঠিক কোন তথ্য দেননি তিনি।

Mustafiz-HOme

তবে মোস্তাফিজুর রহমানের বড় ভাই পিরোজপুর জেলার গ্রামীণফোনের টেরিটরি ম্যানেজার মাহুজার রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ‘শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজের পর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে। পারিবারিক আয়োজনে বিয়েটা হচ্ছে। তবে বাইরের কাউকে জানানো হয়নি। শুধু আমরা কয়েক ভাই মিলে যাবো বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সারার জন্য। এছাড়া পরবর্তীতে অনুষ্ঠান করা হবে, সে সময় সবাইকে জানানো হবে।

বিয়ের বিষয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আমার মা ও নানি এই বিয়ের কারিগর। মোস্তাফিজ বাড়িতে থাকলেও সামিয়া পারভীন শিমু এখনো ঢাকায়। সেখান থেকে রওনা হয়েছে। ফলে বিয়েটা কাল দুপুরেই হচ্ছে।’

আকরামুল ইসলাম/এসএএস/এমকেএইচ