সৌরভ ছড়াচ্ছে সাইফ হাসানের ব্যাট, আবারও সেঞ্চুরি

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৪১ পিএম, ২৩ মার্চ ২০১৯

বয়স মাত্র ২০ বছর। এই বয়সেই ব্যাট হাতে যে সৌরভ ছড়াতে শুরু করেছেন এই তরুণ, তাতে রীতিমত অবাকই হতে হচ্ছে সবাইকে। এখনও পর্যন্ত ৫ ম্যাচ খেলে দুটি সেঞ্চুরির সঙ্গে দুটি বড় হাফ সেঞ্চুরি। এমন অসাধারণ ব্যটিং অনেক সিনিয়র ক্রিকেটারের ব্যাট থেকেও আসেনি।

সর্বশেষ আজ বিকেএসপিতেও সৌরভ ছড়ালেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের এই উঠতি তারকা। ১৩৪ বলে ১৩২ রানে অপরাজিত থেকে প্রাইম দোলেশ্বরকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন সাইফ হাসান। খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির ছুঁড়ে দেয়া ২৫৭ রানের জবাবে সাইফ হাসানের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ৭ উইকেটের ব্যবধানে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে প্রাইম দোলেশ্বর।

এ নিয়ে টানা দুই সেঞ্চুরি করেন সাইফ হাসান। আগের ম্যাচে গাজী গ্রুপের বিপক্ষে ১০২ রানের আরও একটি অসাধারণ ইনিংস খেলেন তিনি। তার আগের ম্যাচে মোহামেডানের বিপক্ষে শুধুমাত্র ৯ রান করে আউট হয়েছিলেন। এর আগে প্রাইম ব্যাংকের বিপক্ষে ৮৫ এবং প্রথম ম্যাচে শাইনপুকুরের বিপক্ষে অপরাজিত ৮৩ রান করেন তিনি।

পাঁচ ম্যাচে করেছেন মোট ৪১১ রান। গড় ১৩৭ করে। টানা তিন সেঞ্চুরি করা এনামুল হক বিজয়ের চেয়েও সাইফ হাসানের গড় বেশি। সর্বশেষ বিকেএসপিতে অপরাজিত সেঞ্চুরি করে দুর্দান্ত এক জয় এনে দিয়েছেন প্রাইম দোলেশ্বরকে।

খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতির ৯ উইকেটে করা ২৫৭ রানের জবাব দিতে নেমে সৈকত আলিকে নিয়ে ইনিংসের সূচনা করেন সাইফ হাসান। ৩৩ রানের মাথায় ব্যাক্তিগত ১৪ রানে বিদায় নেন সৈকত আলি। এরপর মাহমুদুল হাসানকে নিয়ে জুটি বাধেন। যদিও একপ্রান্ত আগলে রেখে রানের চাকা দুর্দান্ত গতিতে সচল রাখেন সাইফ।

দলীয় ৯৪ রানে ব্যক্তিগত ২৪ রানে আউট হয়ে যান মাহমুদুল হাসান। মার্শাল আইয়ুবের সঙ্গে ৭৮ রানের জুটি গড়েন সাইফ হাসান। দলীয় ১৭২ রানে আউট হন মার্শাল আইয়ুব। এ সময় মার্শালের নামের পাশে লেখা ছিল ৪০ রান। এরপর সা’দ নাসিমকে সঙ্গে নিয়ে জয়ের বাকি কাজ শেষ করে দেন সাইফ। ৩৪ রানে অপরাজিত থাকেন সা’দ নাসিম।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৫৭ করে খেলাঘর সমাজ কল্যান সংস্থা। মাহিদুল ইসলাম আকন করেন সর্বোচ্চ ৮৬ রান এবং সাদিকুর রহমান করেন ৫৮ রান।

আইএইচএস/এমকেএইচ