কোহলির ব্যাঙ্গালুরুকে হারিয়ে শুভ সূচনা ধোনির চেন্নাইয়ের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:০০ এএম, ২৪ মার্চ ২০১৯

আইপিএলের এবারের আসরের উদ্বোধনী ম্যাচ। তার ওপর কোহলি-ধোনি মুখোমুখি। জমজমাট এক লড়াইয়ের অপেক্ষাতেই ছিলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।

হলো না। টি-টোয়েন্টির আমেজ পাওয়া গেলো না। কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু যে মাত্র ৭০ রানেই গুটিয়ে গেল।

৭১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে চেন্নাই সুপার কিংসেরও লাগল ১৭.৪ ওভার। মহেন্দ্র সিং ধোনির দল জিতেছে ৭ উইকেটে। রান তাড়ায় আম্বাতি রাইডু ৪২ বলে ২৮ আর সুরেশ রায়না ২১ বলে করেন ১৯ রান।

এর আগে ঘরের মাঠের চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে মাত্র ৭০ রানেই গুটিয়ে গেছে বিরাট কোহলির দল। বাকি ছিল ১৭ বল।

ভারতের সাবেক অধিনায়ক আর বর্তমান অধিনায়কের লড়াই। এমন একটি ম্যাচের দিকে সবারই চোখ থাকবে স্বাভাবিক। একদিকে ধোনির ভক্তরা তো অন্যদিকে কোহলির ভক্তকূল।

উত্তরসূরীর সঙ্গে এই লড়াই জিতে নিয়েছেন ধোনি। বুদ্ধিদীপ্ত নেতৃত্বে ব্যাঙ্গালুরু অধিনায়ক কোহলিকে ভয়ংকর হতে দেননি। ওপেনিংয়ে নেমে মাত্র ৬ রান করে কোহলি ফেরার পরই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ব্যাঙ্গালুরুর ইনিংস।

ওপেনিংয়ে কোহলির সঙ্গে নামা পার্থিব প্যাটেল হাল না ধরলে কি যে হতো! দলের বাকি ব্যাটসম্যানদের কেউ দুই অংকও ছুঁতে পারেননি। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে পার্থিব আউট হন ২৯ রানে। ৩৫ বলের ইনিংসে মাত্র ২টি বাউন্ডারি হাঁকান তিনি।

মঈন আলি (৯), এবি ডি ভিলিয়ার্স (৯), সিমরন হেটমায়ার (০), কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের (৪) মতো নামজাদা ব্যাটসম্যানরা ফিরেছেন দলকে হতাশ করেই।

চেন্নাইয়ের লেগস্পিনার ইমরান তাহির ৪ ওভারে মাত্র ৯ রান খরচ করে নিয়েছেন ৩টি উইকেট। ৩ উইকেট নেন অফস্পিনার হরভজন সিংও। রবীন্দ্র জাদেজা নেন ২টি।

এমএমআর/আরএস