১১ জন ম্যাচ উইনার আছে দক্ষিণ আফ্রিকা দলে!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ১৮ এপ্রিল ২০১৯

বিশ্বকাপের দল ঘোষণা হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। সেই স্কোয়াড দেখে বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, দক্ষিণ আফ্রিকা এবারও বরাবরের মত শক্তিশালি, ফেবারিট। ১৫ সদস্যের কাকে রেখে কাকে খেলাবে দক্ষিণ আফ্রিকা? সেরা একাদশ বাছাই করতেই যেন গলদগর্ম হতে হবে প্রোটিয়া টিম ম্যানেজমেন্টকে।

ইতিমধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার বিশ্বসেরা পেসার ডেল স্টেইন বলে দিয়েছেন, যে ১১জনকেই একাদশে ঠাঁই দেয়া হোক না কেন, সবাই হচ্ছে ম্যাচ উইনার। একেবারে ওপেনার থেকে শুরু করে ১১ নম্বর পর্যন্ত সবাই হচ্ছেন ম্যাচ উইনার। এই ১১ ম্যাচ উইনারই এবার প্রথমবারেরমত বিশ্বকাপ এনে দেবে দক্ষিণ আফ্রিকাকে।

কলকাতায় ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে ম্যাচ খেলতে নামার আগে মিডিয়ার সামনে কথা বলতে গিয়ে নিজের দল সম্পর্কে এভাবেই মন্তব্য করেন স্টেইন। তিনি বলেন, ‘গত দুই আড়াই বছরে দক্ষিণ আফ্রিকা কোনো ওয়ানডে সিরিজ হেরেছে, এমনটা মনে করতে পারছি না (১৩টি সিরিজের মধ্যে ১১টিতেই জিতেছে প্রোটিয়ারা)। কিন্তু কেউ আমাদেরকে এমনি এমনি দিয়ে দেয়নি। আমাদেরকেই জিততে হয়েছে এগুলো।’

বিশ্বকাপ জয়ের জন্যই ইংল্যান্ড যাবে দক্ষিণ আফ্রিকা। এমন আত্মবিশ্বাসের কথা জানিয়ে স্টেইন বলেন, ‘আমরা দক্ষিণ আফ্রিকা যাবো একটা দারুণ স্বপ্ন এবং আশা নিয়ে। যদি আপনি জয়ের জন্যই না যান, তাহলে আপনার সেখানে না যাওয়াই উচিৎ। কিন্তু আমি মিথ্যা বলছি না। সত্যিই আমাদের দলে দুর্দান্ত কিছু ক্রিকেটার রয়েছেন।’

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের মধ্যে কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহির এবং ফ্যাফ ডু প্লেসি- গত কয়েক মাসে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। এমনকি চলমান আইপিএলেও তারা পারফর্ম করে যাচ্ছেন। স্টেইন আশা করেন, এই তিনজনের ফর্ম, অন্যদের ভুমিকায় এবার বিশ্বকাপটা তারাই জিতবেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের অধিনায়ক ফ্যাফ। যিনি এই সময়ে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। আইপিএলে ইমরান তাহির যেন উইকেটকে নিজের পক্ষে কথা বলাচ্ছেন। একেবারে কুইন্টন ডি কক থেকে শুরু করে ১১ নম্বর পর্যন্ত- সবাই হচ্ছে ম্যাচ উইনার। আমাদের এখন কাজ হলো সেখানে যাওয়া এবং ভাগ্যের কিছু সহায়তা পাওয়া।’

আইএইচএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :