নারীদের আপত্তিকর মন্তব্যে অভিনব জরিমানা পান্ডিয়া-রাহুলের

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৩৩ পিএম, ২০ এপ্রিল ২০১৯

ভারতের জনপ্রিয় টক শো ‘কফি উইথ করণ’ অনুষ্ঠানে অনেকেই খোলাখুলি অনেক কিছু বলেন। তবে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের বেলায় যে কিছু বিধি নিষেধ আছে, সেটা বেমালুল ভুলে গিয়েছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া এবং লোকেশ।

সে অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে যৌনতা নিয়ে খোলাখুলি কথা বলতে গিয়ে নারীদের অপমান করে বসেন তারা। তার পরই ভারতীয় ক্রিকেটে শক্ত আলোড়ন। তীব্র সমালোচনার মুখে প্রাথমিকভাবে হার্দিক আর রাহুলকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়। পরে সে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হলেও চলতে থাকে বিচারকাজ।

আজ সে বিচার কাজ শেষে অভিনব এক জরিমানার সিদ্ধান্ত জানিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) শৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান ডি কে জেইন। নারীদের আপত্তিকর মন্তব্য করা এ দুই ক্রিকেটারকে দাতব্য প্রতিষ্ঠানে আর্থিক সাহায্য করার শাস্তি দেয়া হয়েছে।

তবে সেটিও দুইভাবে। প্রথমত পান্ডিয়া এবং রাহুল দুজনকেই ১০ লাখ রুপি করে এককালীন অনুদান দিতে হবে ভারতের অন্ধ ক্রিকেটারদের জন্য গঠিত ফান্ডে। এবং দুজনকেই ১০ কিস্তিতে এক লাখ করে রূপ দিতে হবে দায়িত্বরত অবস্থায় মারা যাওয়া সেনাসদস্যদের পরিবারের পুনর্বাসনের জন্য গঠিত ফান্ডে।

অর্থাৎ দুজনকে ২০ লাখ করে মোট ৪০ লাখ রুপি জরিমানা গুনতে হবে। ভারতের সংবাদমাধ্যমের দেয়া খবর অনুযায়ী আগামী ৪ সপ্তাহের মধ্যে তারা এটি দিতে ব্যর্থ হলে বিসিসিআইয়ের মাধ্যমে এই জরিমানার টাকা আদায় করা হবে। সেক্ষেত্রে পান্ডিয়া ও রাহুলের ম্যাচ ফি থেকে কেটে নেয়া হবে সমপরিমাণ অর্থ।

পান্ডিয়া এবং রাহুলের আর্থিক জরিমানা আরও বাড়তে পারতো। তবে শাস্তি ঘোষণার সময় মাথায় রাখা হয়েছে যে অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে তাদের বাদ দেয়ার কারণে প্রায় ৩ লাখ রুপি ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছিলেন। তাই জরিমানার অঙ্কটা খুব বেশি বাড়ানো হয়নি। এছাড়া দুজনই আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ায় অন্য কোনো শাস্তির ব্যাপারেও পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

এসএএস/জেআইএম