আবারও প্রশ্নবিদ্ধ বাবরের সেঞ্চুরি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০৫ পিএম, ২৬ মে ২০১৯

বিশ্বকাপের আগে নিজেদের শেষবারের মতো ঝালিয়ে নিতে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে গা গরম নিচ্ছে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। গত শুক্রবার আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে নামে পাকিস্তানও। তবে সেই ম্যাচে তারা হেরেছে আফগানিস্তানের কাছে।

টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান বাবর আজমের সেঞ্চুরির সুবাদে স্কোরবোর্ডে ২৬২ রানের সংগ্রহ পেলেও, আফগানরা ম্যাচ জিতে নেয় ৩ উইকেট হাতে রেখে।

এদিকে দলের হয়ে সর্বোচ্চ স্কোর কিংবা সেঞ্চুরির মাইলফলক স্পর্শ করেও বিপাকে পড়েছেন বাবর। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১০৮ বলে ১০৩ স্ট্রাইক নিয়ে ১১২ রানের ইনিংসটি খেলেন তিনি। কিন্তু এমন ইনিংসে প্রশংসা তো দূরে থাক সংবাদ সম্মেলনে বিব্রতকর পরিস্থিতির শিকার হন বাবর।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলন বাবরকে উদ্দেশ্য করে এক সাংবাদিক সোজা বলে বসেন, ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে অলস সেঞ্চুরিটি করেছেন আপনি। এরকম মরা উইকেটে এই ব্যাটিং!

বলে রাখা ভালো, আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাবর ১০৩ স্ট্রাইক রেটে রান করলেও পুরো দল বাকি ১৪৭ রান তুলেছে মাত্র ৮৩ স্ট্রাইক রেটে। এরকম মন্তব্যের জন্য তাই প্রস্তুত ছিলেন না এই ব্যাটসম্যান।

তবে এর প্রতিউত্তরে বাবর আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেন, 'স্যার, আপনি হয়তো তা ভাবতে পারেন। কিন্তু খেলার পরিকল্পনা অনুসারে আমাকে এভাবে ব্যাটিং করতে হয়েছে। আমি আমার জন্য খেলি না। এটা আমার দল নয়। এটা পাকিস্তান দল- যেখানে আমি খেলি। আমার কাজ ছিল বড় জুটি গড়া। আর আমি যদি নিজেও আউট হয়ে যেতাম, তবে এই সংগ্রহ পাওয়াও কিন্তু সম্ভব ছিল না।'

এর আগে, গত ১৭ মে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েও একই ধরনের সমালোচনার মুখে পড়েন বাবর। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ ওয়ানডে ১১২ বলে ১১৫ রানের ইনিংস খেলেন। কিন্তু তার এমন ইনিংস খুশি করাতে পারেনি পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার রমিজ রাজাকে। ওই ম্যাচ পাকিস্তান হারায় উল্টো বাবরকেই এর জন্য দায়ী করেন রমিজ।

সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক তার মন্তব্যের প্রতি যুক্তিও দেখিয়েছেন। তিনি জানান, সেঞ্চুরি পাওয়ার জন্য খুব বেশি ডট বল খেলেছেন বাবর। বিশেষ করে নব্বই হয়ে যাওয়ার পর স্বার্থপরের মতো এই ব্যাটসম্যান নিজের কথা ভেবেছেন।

এ ছাড়াও বাবরকে স্বার্থপর ব্যাটসম্যানের উদাহরণ বানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা দেখছি স্বার্থপরতা। একজন খেলোয়াড় হিসেবে আমরা নিজেদের পারফরম্যান্স আর মাইলফলকের কথা ভাবছি। যা কিনা দলকে সার্বিকভাবে বিপদে ফেলছে।’

এসএস/এসএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :