কাশ্মীরে ভারতীয় সেনাদের গান গেয়ে উজ্জীবিত করছেন ধোনি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:০৯ পিএম, ১০ আগস্ট ২০১৯

বিশ্বকাপের পরপরই তাবে নিয়ে তুমুল আলোচনা। ক্রিকেটকে কি তিনি চিরতরে বিদায় বলে দেবেন? মহেন্দ্র সিং ধোনি বাইরের এসব আলোচনার দিকে মোটেও কান দিতে রাজি ছিলেন না। কারণ, তার মন ছিল তখন কাশ্মীরে। ভারতীয় সেনা দলের অংশ হয়ে কাশ্মীরে যেতে ব্যাকুল হয়ে পড়েন ধোনি।

যে কারণে ক্রিকেট থেকে অবসর না নিলেও ধোনি জানিয়ে দেন তিনি ক্যারিবীয় সফরে থাকবেন না। নির্বাচকরাও তাকে রাখলেন না। সবাই অবাক, অবসরও নিলেন না; আবার বিসিসিআই বলছে, ধোনি ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত থাকবেন জাতীয় দলে। এমন পরিস্থিতিতে কেন তাকে দলে রাখা হলো না?

প্রশ্ন উঠতেই জানা গেলো, ধোনি ততক্ষণে রণাঙ্গনে চলে গেছেন। কাশ্মীরে ভারতীয় সেনারা তাদের মাঝে স্বপ্নের নায়ককে পেয়ে আরও বেশি উজ্জীবিত হয়ে উঠলো। এরই মধ্যে নানা ঘটনার জন্ম দিয়ে ভারত সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে পুরো অঞ্চলটাকে দুই ভাগ করে দিলো। পুরোপুরি ভারতের অধীন হয়ে গেলো কাশ্মীর।

এসবেরই অংশীদার হলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। ভারতীয় সেনাবাহিনীর অংশ হয়ে কাশ্মীরকে পুরোপুরি দখলে ভূমিকা রাখলেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী এই অধিনায়ক।

কাশ্মীরে এখন চলছে কারফিউ। ইন্টারনেট, মোবাইল থেকে শুরু করে সব যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে কাশ্মীরে। বাকি বিশ্ব থেকে কাশ্মীরকে পুরোপুরি আলাদা করে দেয়া হয়েছে। সেখানে ভারতীয় বাহিনী কি করছে, জানার উপায় নেই কারও।

এরই মধ্যে খবর এবং ভিডিও প্রকাশ হলো, ভারতীয় দখলদার বাহিনীকে গান গেয়ে শুনিয়ে উজ্জীবিত করছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। শ্রীনগরে ভারতের ১০৬ নম্বর টেরিটোরিয়াল আর্মি ব্যাটেলিয়নে যোগ দিয়েছেন ধোনি। সেনা পোশাকে ব্যাটে অটোগ্রাফ দেওয়া ধোনির ছবি ভাইরালও হয়েছিল এর আগে। এরপর দেখা গেছে সেনাকর্মীদের সঙ্গে ভলিবল খেলতে। এবার গান গেয়ে সতীর্থ সেনাকর্মীদের মাতিয়ে রাখেন এই ক্রিকেটার।

২০১১ বিশ্বকাপ জয়ে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দেয়ার পুরস্কার হিসেবে ধোনিকে ভারতীয় সেনাবাহিনী লেফটেন্যান্ট কর্নেল হিসেবে ভূষিত করে। এরপর ২০১৫ আগ্রায় সেনা এয়ারক্র্যাফটের প্রশিক্ষণে পাঁচটি প্যারাশুট জাম্প সম্পূর্ণ করেন তিনি। একই সঙ্গে একজন কোয়ালিফায়েড প্যারাট্রুপার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেন ভারতের বিশ্বজয়ী অধিনায়ক।

এবারের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে নিজের কিপিং গ্লাভসে সেনাবাহিনীর লোগো লাগিয়ে বিতর্কের জন্ম দেন ধোনি। শেষে আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় সেই লোগো সরিয়ে ফেলতে বাধ্য হন তিনি। কিন্তু বিশ্বকাপের পর নিজেই স্বশরীরে যোগ দিলেন সেনাবাহিনীতে এবং ভুমিকা রাখলেন কাশ্মীর দখলে।

সাতের দশকে বলিউড ছবি কভি কভি’র জনপ্রিয় ‘ম্যায় পল দো পল কা শায়ের হু…’ গান নিজের কণ্ঠে গেয়ে ধোনি শোনালেন সহকর্মী সৈনিকদের। ধোনির কণ্ঠে গান শুনে রীতিমত উচ্ছ্বসিত সেনাকর্মীরা।

৩১ জুলাই থেকে ১৫ অগস্ট পর্যন্ত টেরিটোরিয়াল আর্মির ভিক্টর বাহিনীর হয়ে কাশ্মীর উপত্যকায় টহলদারি, পাহারা ও পোস্ট সামলানোর দায়িত্ব পালন করবেন আর্মির প্যারাশুট ইউনিটের লেফটেন্যান্ট কর্নেল (সাম্মানিক) ধোনি। ৩৮ বছরের টিম ইন্ডিয়ার উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ১৫ দিন একজন সাধারণ সৈনিকের মতোই জীবনযাপন করছেন।

আইএইচএস/এমএস