অসি পেসে দিশেহারা ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১০:২০ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৯

বৃষ্টিতে পুরো একটি দিন ভেসে গেছে। দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই হলো টস। সেই টস জিতে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকেই ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক টিম পেইন। ভেজা উইকেট, একদিন কাভারে ঢাকা ছিল, তাই প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন অসি অধিনায়ক।

তার ধারণা সত্যি প্রমাণ করে অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা শুরুতেই চেপে ধরে ইংলিশ ব্যাটিং লাইনআপকে। একমাত্র ওপেনার ররি বার্নস ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতে পারেনি অসি বোলারদের সামনে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে হারাতে শেষ পর্যন্ত ১৩৮ রানেই নাই হয়ে যায় ইংলিশদের ৬ উইকেট।

তবে এমন পরিস্থিতিতে ইংল্যান্ডের হাল ধরলেন ক্রিস ওকস এবং জনি বেয়ারেস্ট। এ দুজনের ৭২ রানের জুটি মোটামুটি সম্মান বাঁচিয়ে দিয়েছে ইংলিশদের। তাদের ব্যাটে ভর করে ২০০ রান পার হয় ইংল্যান্ড। তবে ৭২ রানের জুটি গড়ার পর বিচ্ছিন্ন হয়ে যান তারা দুজন। ৬২ বলে ৩২ রান করে আউট হয়ে যান ক্রিস ওকস।

এ রিপোর্ট লেখার সময় ইংল্যান্ডের রান ৬৫.২ ওভার শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ২১৪। ৪১ রান নিয়ে ব্যাট করছেন জনি বেয়ারেস্ট। তার নতুন সঙ্গী জোফরা আর্চার।

দিনের শুরুতেই জস হ্যাজলউডের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানে ফিরে যান জেসন রয়। এরপর ১৪ রান করে আউট হয়ে যান অধিনায়ক জো রুট।

জো ড্যানলি মাঠে নেমে জুটি বাধেন ররি বার্নসের সঙ্গে। ৬৬ রানের জুটি গড়েন তারা দু’জন। এ সময় ৩০ রানে আউট হয়ে যান জো ড্যানলি। দলীয় রান তখন ৯২। এরপর কিছুক্ষণ পর, দলীয় ১১৬ রানে আউট হয়ে যান ররি বার্নসও। তিনি করেন সর্বোচ্চ ৫৩ রান।

জস বাটলার ১২ এবং বেন স্টোকস ১৩ রান করে সাজঘরে ফিরে গেলে মাঠে নেমে জুটি বাধেন জনি বেয়ারেস্ট এবং ক্রিস ওকস। তবে তাদের ৭২ রানের জুটি ভেঙে দেন প্যাট কমিন্স। হ্যাজলউড ৩টি এবং প্যাট কামিন্স নেন ২ উইকেট।

আইএইচএস/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :