‘একসঙ্গে এত সাংবাদিক কখনও দেখিনি’

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪৯ পিএম, ২১ আগস্ট ২০১৯

উপমহাদেশে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা কেমন, সেটা আন্দাজ করতে গ্যালারিতে যেতে হয় না, প্রেস কনফারেন্সে সাংবাদিকদের উপস্থিতি দেখলেই বোঝা যায়। অন্তত উপমহাদেশের বাইরে থেকে সফরে আসা ক্রিকেট সংশ্লিষ্টরা এটা বেশ ভালোভাবেই টের পেয়ে থাকেন।

বাংলাদেশের কোচ হয়ে আসা দক্ষিণ আফ্রিকান রাসেল ডোমিঙ্গো একদিন আগেই এসে পৌঁছেছেন ঢাকায়। বিমান থেকে নেমে যেই না বিমানবন্দর থেকে বেরুতে যাবেন, তখনই তিনি অবাক হয়ে যান শতাধিক ক্যামেরা এবং সাংবাদিক দেখে।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজ ছিল তার প্রথম দিন। পরিচয় পর্ব থেকে শুরু করে কাজ শুরু করা, বিসিবি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক- সবই করতে হয়েছে আজ। এরই ফাঁকে তিনি মুখোমুখি হন সাংবাদিকদেরও। সেখানে এসে তো রাসেল ডোমিঙ্গো অবাক।

জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলন বলতে কি বোঝায়, তা হয়তো এতদিন ধারণায়ও ছিল না এই দক্ষিণ আফ্রিকান কোচের। বাংলাদেশে এসে সেই শিক্ষাটাও পেয়ে গেলেন তিনি। কারণ, একসঙ্গে এক জায়গায় এত সাংবাদিক এর আগে আর কখনও দেখেননি তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে কথা বলতে গিয়ে রাসেল ডোমিঙ্গো বলেন, ‘আমি জীবনেও এতো রিপোর্টার একসঙ্গে দেখিনি। এমনকি দক্ষিণ আফ্রিকার বড় কোনো ম্যাচের আগের প্রেস কনফারেন্সেও বড়জোর আট-নয়জন রিপোর্টার থাকে। এই যে বাংলাদেশের মানুষের ক্রিকেট নিয়ে এতো আবেগ, এটাই হয়তো আমাকে এখানে ছুটে আসতে সবচেয়ে বেশি অনুপ্রাণিত করেছে।’

বাংলাদেশে এবারই কিন্তু প্রথম আসেননি। যে কোনো পর্যায়ের যে কোনো জাতীয় দলের কোচ হিসেবে তার প্রথম অ্যাসাইনমেন্টই ছিল কিন্তু বাংলাদেশে। ২০০৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ হয়ে প্রথম বাংলাদেশে এসেছিলেন ডোমিঙ্গো। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, এ নিয়ে সপ্তমবার আমি বাংলাদেশে আসলাম। প্রথমবার ২০০৪ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ হিসেবে বাংলাদেশে আসি।’

আইএইচএস/এমকেএইচ