ছয় মাস নয়, বাৎসরিক চুক্তিতেই থাকছে বিসিবি

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:১৩ পিএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯

আচ্ছা, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড কি ক্রিকেটারদের সাথে এক বছরের চুক্তির মেয়াদ কমিয়ে ছয় মাসে নামিয়ে আনতে চাচ্ছে। হঠাৎ গুঞ্জন! একটি ভারতীয় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইটে আজ সন্ধ্যায় নিউজও হয়েছে। সেখানে বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স আকরাম খানের কথাবার্তাও আছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে বিসিবি ক্রিকেটারদের সঙ্গে করা এক বছরের চুক্তির সময়সীমা কমিয়ে ছয় মাসে নামিয়ে আনার কথা চিন্তাভাবনা করছে। এ সম্পর্কে জাতীয় দল, ক্রিকেটারদের পরিচর্যা ও তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে নিয়োজিত ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানের সঙ্গে কথা বলা হয় জাগোনিউজের পক্ষ থেকে।

তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘না না। এমন কোন চিন্তাভাবনা নেই আমাদের। আর এটা কোন নতুন বিষয়ও নয়। আমরা যে ক্রিকেটারদের সঙ্গে চুক্তি করি, সেখানে আগে থেকেই বলা থাকে বিসিবি চাইলে পারফরমেন্স ও ডিসিপ্লিনের আলোকে তার সময়সীমা কমিয়ে ছয় মাসে নামিয়ে আনতে পারে। শুধু সেটাই নয়, চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারদের সংখ্যা বাড়ানো কমানোর শতভাগ এখতিয়ারও আছে বোর্ডের। ছয় মাস না যেতেই যদি কারো পারফরমেন্স খুব বেশি খারাপ হয় আর কেউ বড় ধরনের শৃঙ্খলা ভঙ্গের ঘটনা ঘটায় এবং অন্যদিকে চুক্তির বাইরে থাকা কোন ক্রিকেটার অনেক বেশি ভাল খেলে তাহলে চুক্তি নতুন করে হতে পারে।’

তাহলে কি আপনার এখন এমন কিছু ভাবছেন? জাগো নিউজের কাছ থেকে এমন প্রশ্ন শুনে আকরাম খান বলেন, ‘না না, আমরা এখন তা কমানোর চিন্তাভাবনা করছি না।’

উল্লেখ্য, বিসিবি আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে এখন চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারের সংখ্যা অনেক কম, মোটে ১০ জন। ২০১৯ সালে চুক্তির আওতায় থাকা ১০ ক্রিকেটার হলেন মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, মাশরাফি বিন মর্তুজা, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুমিনুল হক, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, তাইজুল ইসলাম ও মেহেদি হাসান মিরাজ।

এই ১০ ক্রিকেটারের মধ্যে এ+ ক্যাটাগরির বেতন ৪ লাখ টাকা। এ ক্যাটাগরির বেতন ৩ লাখ, বি ক্যাটাগরি ক্রিকেটাররা পান মাসে ২ লাখ, সি ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের জন্য মাসিক বরাদ্দ দেড় লাখ এবং ডি ক্যাটাগরির ক্রিকেটারদের বেতন ১ লাখ টাকা।

এআরবি/এসএএস/পিআর