লেগস্পিনারের অভাব ঘোচাতেই দলে তরুণ বিপ্লব

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:৩৭ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান আমিনুল ইসলামের সঙ্গে নামের হুবুহু মিল। খালি ডাক নামটাই যা পার্থক্য। বুলবুলের বদলে বিপ্লব। আজ (সোমবার) সকাল সকাল তার নাম জাতীয় দলে দেখে অনেকেই চমকে উঠেছেন।

তবে জাগো নিউজের পাঠকদের একদমই অবাক হবার কথা নয়। কারণ একদম জাতীয় দলে নাম লেখানোর কথা বলা না হলেও, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব নামের যে একজন ব্যাটসম্যান কাম স্পিনার আছেন এবং তাকে যে এবার আফগানিস্তানের সাথে একমাত্র টেস্ট আর টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডাকা হবে- সেই খবর জাগো নিউজের পাঠকরা অনেক আগেই জেনে গেছেন।

এ মুহুর্তে সাঈফ হাসান, নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, ইয়াসির আরাফাত রাব্বি আর আফিফ হোসেন ধ্রুবর পরপরই উচ্চারিত হয়েছে আমিনুল বিপ্লবের নাম। তিনি মূলত একজন ব্যাটসম্যান, যিনি সচরাচর চার নম্বরে ব্যাট করেন পাশাপাশি লেগস্পিন বোলিংটাও ভালই পারেন।

Biplob-2

‘এ’ দল, এইচপি আর ইমার্জিং একাদশের পক্ষে প্রায় নিয়মিত হাত ঘুরিয়েছেন, উইকেটও পেয়েছেন। পাশাপাশি মোটামুটি রানও করেছেন। তাই রদবদলের পালায় ভারত সফরের জন্য মনোনীত অনূর্ধ্ব-২৩ দল থেকে একদম শেষ মুহূর্তে জাতীয় দলে ডাক পেলেন আমিনুল বিপ্লব।

এইচপি তথা ভারত সফরের জন্য সাজানো দল থেকে আগেই জাতীয় দলে নেয়া হয়েছে আফিফ হোসেন ধ্রুবকে। বাঁহাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি আফিফ অফস্পিন বোলিংটাও করেন। গত ১৩ সেপ্টেম্বর শেরে বাংলায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে স্মরণীয় ও স্বপ্নীল সূচনা হয়েছে আফিফের।

দলে জায়গা পেয়ে প্রথম দিনই ব্যাট হাতে জ্বলে উঠে দল জেতানো ব্যাটিং করে আফিফ সবার প্রশংসাধন্য। এখন সুখ সগরে আসছেন। তার পাশাপাশি আজ অনূর্ধ্ব-২৩ দলের অপর দুই সদস্য বয়সভিত্তিক জাতীয় দল এবং এইচপির হয়ে প্রায় নিয়মিত খেলা নাজমুল হোসেন শান্ত আর আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকেও জাতীয় দলে নেয়া হয়েছে।

সাঈফ হাসান, ইয়াসির রাব্বির মত তুলনামূলক বেশি পরিচিত ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বেশি এক্সপোজার পাওয়া পারফরমারকে বাইরে রেখে আমিনুল বিপ্লবকে নেয়ায় রীতিমত বিস্মিত অনেকেই। তার অন্তর্ভুক্তি নিয়ে প্রশ্নও উঠেছে।

কেন সাঈফ হাসান আর ইয়াসির রাব্বির মত পারফরমারকে বাইরে রেখে আমিনুল বিপ্লবকে নেয়া হলো? এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে জানা হলো, ব্যাটসম্যান হিসেবে নয়, মূলত লেগব্রেক গুগলি বোলার হিসেবেই জাতীয় দলে এসেছেন আমিনুল বিপ্লব।

আজ দুপুরে দল নিয়ে জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘আমরা মূলত লেগস্পিনার হিসেবেই আমিনুল বিপ্লবকে দলে রেখেছি। বলতে পারেন, সে আমাদের লেগস্পিন অপশন। সবচেয়ে বড় কথা দলে একজন লেগস্পিনরারের বড়ই অভাব। এখন তাই লেগব্রেক বোলার হিসেবে আমরা আমিনুল বিপ্লবকে বেছে নিয়েছি।’

মোদ্দাকথা, একজন প্রতিষ্ঠিত উইলোবাজ হিসেবে অনূর্ধ্ব-১৯, এইচপি আর ইমার্জিং দলে খেললেও ব্যাটসম্যান কাম লেগস্পিনার হবার কারণেই আমিনুল বিপ্লব মূল্যায়িত হয়েছেন। দীর্ঘ দিন ধরে একজন লেগির অপেক্ষায় টিম বাংলাদেশ। মাঝে জোবায়ের হোসেন লিখনকে দিয়ে কাজ চালানোর চেষ্টা চললেও বর্তমানে তিনিও চরম হতাশায়। তার আবার জাতীয় দলে ফেরাও বেশ কঠিন হরে গেছে। সেখানে লেগব্রেক গুগলি বোলার হিসেবে আমিনুল বিপ্লবকে দিয়ে এবার চেষ্টা চালানো হবে।

উল্লেখ্য, আফগান ‘এ’ দলের বিপক্ষে বেশ কটি ম্যাচে রান পেয়েছেন বিপ্লব। পাশাপাশি উইকেটও পেয়েছেন। তাই নির্বাচকরা মনে করছেন এ অলরাউন্ডার হতে পারেন এই আসরের চমক। আর সে কথা ভেবেই তাকে দলে নেয়া। দেখা যাক মাঠে কেমন করেন বিপ্লব?

এআরবি/এসএএস/জেআইএম