৬৩ বছরে তার মতো পারেনি আর কেউ!

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৫৩ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কলপাক চুক্তি- দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটের জন্য এক অভিশাপই বটে। যার ফাঁদে পড়ে অনেক নামী ক্রিকেটারকে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সেসব ক্রিকেটারই আবার মাতিয়ে বেড়াচ্ছেন ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেট। এদের মধ্যে অন্যতম ডানহাতি পেসার কাইল অ্যাবট।

যিনি এমন এক কীর্তি গড়েছেন, যা ৬৩ বছর ধরেও করতে পারেননি বিশ্বের আর কোনো বোলার। বছর দুয়েক আগে কলপাক চুক্তিতে দেশের ক্রিকেট ছেড়ে ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্লাব হ্যাম্পশায়ারে নাম লিখিয়েছেন তিনি। এ দলের হয়েই অবিশ্বাস্য বোলিং করে নিজের নাম লিখিয়েছেন রেকর্ডের খাতায়।

কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ ডিভিশন-১ এর ম্যাচে সমারসেটের বিপক্ষে একাই নিয়েছেন ১৭ উইকেট। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের ইতিহাসে গত ৬৩ বছরে এটিই ম্যাচে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড। সেই ১৯৫৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের দুই ইনিংসে ১৯ উইকেট শিকার করেছিলেন ইংল্যান্ডের অফস্পিনার জিম লেকার। টেস্ট তথা প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এটিই ম্যাচে সেরা বোলিংয়ের বিশ্বরেকর্ড।

লেকারের এই কীর্তির পর আর কেউই পারেননি তার ধারেকাছেও যেতে। অবশেষে ৬৩ বছর পর সে সেই সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন কাইল অ্যাবট। তবে পারেননি লেকারের মতো ১৯ উইকেট শিকার করতে। তিনি থেমেছেন ১৭ উইকেট নিয়ে। তবে এটিই গত ৬৩ বছরে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড।

সাউদাম্পটনের রোজ বোলে ম্যাচের দ্বিতীয় এবং সমারসেটের প্রথম ইনিংসে মাত্র ৪০ রান খরচায় ৯ উইকেট শিকার করেন অ্যাবট। শুধুমাত্র টম ব্র্যান্টনের উইকেট নিতে পারেননি তিনি। অ্যাবটের তোপে সমারসেট অলআউট হয় ১৪২ রানে। তবে হ্যাম্পশায়ারও আগে ব্যাট করে ১৯৬ রানের বেশি করতে পারেনি। ফলে প্রথম ইনিংসে তাদের লিড দাঁড়ায় ৫৪ রানের।

পরে অধিনায়ক জেমস ভিনসের ১৪২ রানের ইনিংসের পরেও দ্বিতীয় ইনিংসে ২২৬ রানে অলআউট হয়ে যায় হ্যাম্পশায়ার। ম্যাচ জেতার জন্য সমারসেটের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৮১ রানের।

লক্ষ্য তেমন বড় না হলেও, আগুনে ফর্মে ছিলেন অ্যাবট। তাই তো প্রথম ইনিংসে ৯ উইকেট নেয়ার পর, দ্বিতীয় ইনিংসেও তার শিকার ৮ জন ব্যাটসম্যান। প্রথম ইনিংসে আউট করতে না পারা ব্র্যান্টনকে এবার তিনি ফেরান লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলে। এ ইনিংসে অ্যাবটের বোলিং ফিগার দাঁড়ায় ১৭.৪-৩-৪৬-৮ এবং প্রথম ইনিংসে ছিল ১৮.৪-৯-৪০-৯।

দুই ইনিংস মিলে ৩৬.১ ওভারে ১২ মেইডেনের সাহায্যে ৮৬ রান খরচায় ১৭ উইকেট শিকার করেন ডানহাতি এ পেসার। জিম লেকারের ১৯ উইকেটের পর গত ৬৩ বছরে এটিই প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড।

এসএএস/পিআর