বোল্ড হয়ে রাগে স্টাম্প ভাঙলেন ব্যাটসম্যান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:১১ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মজার খেলা ক্রিকেট, গৌরবসময় অনিশ্চয়তার খেলা। এ খেলায় কখন কী হয়, তা আগেভাগে বলতে পারবেন না কেউই। ঠিক যেমন বৃহস্পতিবার কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ ডিভিশন ওয়ানে ওয়ারউইকশায়ার ও নটিংহ্যামশায়ারের বিপক্ষে ম্যাচে জো ক্লার্ক যে কাণ্ড ঘটালেন, তা ভাবতেও পারেননি কেউ।

ব্যাটিং পারফরম্যান্সের জন্যই ওয়ারউইকশায়ারের বিপক্ষে ম্যাচটি স্মরণীয় হয়ে থাকতো নটিংহ্যামশায়ারের ব্যাটসম্যান জো ক্লার্কের জন্য। কেননা ম্যাচের দুই ইনিংসেই যে তিনি হাঁকিয়েছেন সেঞ্চুরি। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিজের ১৫ ও ১৬তম সেঞ্চুরি করার পরপরই তিনি জন্ম দেন অবাক করা এক কান্ডের।

ঘটনাটি ম্যাচে নটিংহ্যামশায়ারের দ্বিতীয় ইনিংসের। প্রথম ইনিংসের পাওয়া ১০ রানের লিড নিয়ে ব্যাট করতে নেমেছিল দলটি। কিন্তু ব্যাটসম্যানদের কেউই পারেননি ভালো কিছু করতে। একাই লড়ে যান জো ক্লার্ক। আট নম্বরে নেমে তাকে খানিক সঙ্গ দিয়ে ৭৩ রানের জুটি গড়েন রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৪২)।

এরপর ফের একা বনে যান জো ক্লার্ক। ওয়ারউইকশায়ারের সামনে চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুড়ে দেয়ার চেষ্টায় তিনি হাঁকান ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। তবে শতরানের পর বেশিদূর যেতে পারেননি ক্লার্ক। নটিংহ্যামশায়ারের সংগ্রহ তখন ৭০.৫ ওভারে ৯ উইকেটে ২৬০ রান।

নয় উইকেট পরে যাওয়ায় ওভারের শেষ বলে সিঙ্গেল নেয়ার পরিকল্পনা ছিলো জো ক্লার্কের। যে কারণে অলিভার হ্যানন ডেলভির অফস্টাম্পের বাইরের বলটি আলতোভাবে খেলার জন্য, নিজেও অফসাইডে সরে আসেন ক্লার্ক। কিন্তু বলটি লাগে তার ব্যাটের ভেতরের কানায় এবং আঘাত হানে লেগস্টাম্পে, যা উপড়ে যায় মাটি থেকে।

এভাবে বোল্ড হয়ে যাওয়ায় নিজের প্রতি রাগ সামলাতে পারেননি ক্লার্ক। তাই ঠায় দাঁড়িয়ে থাকা অফস্টাম্প এবং মিডলস্টাম্পে নিজের ব্যাট দিয়েই আঘাত করে বসেন তিনি। সঙ্গে লেগস্টাম্পের মতো মাটি থেকে উপড়ে যায় বাকি দুই স্টাম্পও। নিজের এ কাজের জন্য সঙ্গে সঙ্গে ক্ষমা চেয়েছেন ক্লার্ক। তবে এটিকে হালকাভাবে দেখার কোনো সুযোগই নেই। হয়তো দুই-একদিনের মধ্যেই বড় কোনো শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে তাকে।

এ পুরো ঘটনার ভিডিও আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছেন ক্লার্কেরই সতীর্থ খেলোয়াড় বেন ডাকেট। নিজ দলের খেলোয়াড়ের মেজাজ হারানোর ঘটনাটি নিয়ে মজা করে ডাকেট লিখেন, 'এটাকে (ক্লার্কের ঘটনা) কী বলা যায়?'

উল্লেখ্য, ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ১২৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন জো ক্লার্ক। সঙ্গে অধিনায়ক স্টিভেন মুলানির ১৭৯ রানে ভর করে নটিংহ্যামশায়ার করে ৪৯৮ রান। জবাবে ডমিনিক সিলবির ২১৫ রানের পরেও ৪৮৮ রানে অলআউট হয় ওয়ারউইকশায়ার।

তবে দ্বিতীয় ইনিংসে আর বড় সংগ্রহ দাঁড় করাতে পারেনি নটিংহ্যাম। ক্লার্কের ১১২ রানের ইনিংসের পরেও তারা অলআউট হয় ২৬০ রানে, ওয়ারউইকশায়ারের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৭১ রানের। দ্বিতীয় ইনিংসেও সেঞ্চুরি করেন সিলবি। তার অপরাজিত ১০৯ রানের ইনিংসের সুবাদে ৮ উইকেটের সহজ জয় পায় ওয়ারউইকশায়ার।

এসএএস/এমএস