আফগানদের বিপক্ষে চার পেসার নিয়ে নামছে বাংলাদেশ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৫:০০ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আগেই জানা, লেগস্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব খেলতে পারবেন না। ১৮ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেকে ১৮ রানে ২ উইকেট পেলেও ফিল্ডিং করতে গিয়ে বাঁ হাতের তালুতে ব্যাথা পেয়েছেন এ লেগস্পিনার। ক্ষতস্থানে তিনটি সেলাইও দিতে হয়েছে।

হাতের অবস্থার উন্নতি ঘটলেও আজ (শনিবার) আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিপ্লবকে বিশ্রাম দেয়া হয়েছে। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জাতীয় দল টিম হোটেল ছাড়ার আগে (ঘড়ির কাটায় সময় তখন বিকেল সাড় ৪টা) জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেছেন এই খবর। প্রশ্ন ছিল, আজকের একাদশ কেমন হবে? পরিবর্তন কয়টা? নান্নুর জবাব, একটি রদবদল। বিপ্লব থাকবেন বিশ্রামে।

তাহলে তার বদলে কে? নিশ্চয়ই বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম কিংবা মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান রুম্মন? খানিক চুপ থাকা প্রধান নির্বাচকের মুখে থেকে বেরিয়ে এলো এমন একটি নাম, যা কোন হিসেবেই ছিল না।

বিপ্লবের বিকল্প হিসেবে আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে খেলবেন পেসার রুবেল হোসেন। লেগ স্পিনারের জায়গায় পেসার! তার মানে মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন, মোস্তাফিজুর রহমান আর শফিউল ইসলাম নিয়ে একাদশে মোট চার পেসার? ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের সাথে চার পেসার নিয়ে মাঠে নামা? মেলানো কঠিন বৈকি!

খানিক বিস্ময়ও জাগছে নিশ্চয়ই। কারণ খুঁজে বেড়াচ্ছেন হয়তো। তাহলে শুনুন। প্রথম কারণ, জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সন্ধ্যার ঠিক এক ঘন্টা পর থেকে প্রচুর শিশির পড়ে। যত সময় গড়াতে থাকে , শিশির পড়ার মাত্রা ততই বাড়ে। আর শিশিরে মাঠ বা আউটফিল্ড ভিজে যাওয়া মানেই স্পিনারদের বল ধরায় সমস্যা। সেখানে সাকিবের সাথে আরেক স্পিনার খেলানোর চেয়ে বাড়তি পেসার খেলানোকে যুক্তিযুক্ত মনে করছে টিম ম্যানেজমেন্ট। নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুর ব্যাখ্যাও অনেকটা তা-ই।

পিচে স্পিনারদের জন্য কিছুই নেই। সন্ধ্যার পর থেকে বল স্কিড করে। পেসাররা বরং একটু সাহায্য সহযোগিতা পায়। গত কয়েক দিনে ক্রিস্টোফার এমপফু, শফিউল ইসলাম বা কাইল জারভিস- এই পেসাররাই তুলনামূলক সফল হয়েছেন। তাই বাড়তি পেসার নিয়ে খেলার চিন্তা। তারপরও দেশের মাটিতে চার পেসার খেলানো! কিছুটা অস্বাভাবিকই। পেস বোলার ছাড়া টেস্ট খেলার মতই বিস্ময়কর!

সম্ভাব্য একাদশ :
লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন, মোস্তাফিজুর রহমান, শফিউল ইসলাম ও রুবেল হোসেন।

এআরবি/এমএমআর/এমকেএইচ