পাকিস্তানকে ১৪৮ রানের লক্ষ্য দিল শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:২৮ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

ওয়ানডে সিরিজ হারানোর পর টি-টোয়েন্টি সিরিজে বেশ ভালোভাবেই ঘুরে দাঁড়িয়েছিল শ্রীলঙ্কা। প্রথম দুই ম্যাচে স্বাগতিক পাকিস্তানকে ধরাশায়ী করে জিতে নিয়েছিল সিরিজ। আজ ছিল বাকি থাকা টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি। শ্রীলঙ্কার কাছে খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ না হলেও ঘরের মাঠে পাকিস্তানের জন্য হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর মিশন।

সেই মিশনে পাকিস্তান কতটা সফল হবে? ঘরের মাঠে হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর জন্য অবশ্য শেষ ম্যাচে সহজ লক্ষ্যই পেয়েছে পাকিস্তানিরা। লাহোরের গাদ্দাফী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তানি পেসারদের দাপটে শ্রীলঙ্কাকে থামতে হয়েছে মাত্র ১৪৭ রানে। ফলে জয়ের জন্য ১৪৮ রানের লক্ষ্য পেলো স্বাগতিক পাকিস্তান।

পাকিস্তানে শ্রীলঙ্কার সফর নিয়ে ছিল বেশ সংশয়। সেই সংশয় কাটিয়ে অবশেষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে ফেললো লঙ্কানরা। আজ হচ্ছে পুরো সফরের শেষ ম্যাচের লড়াই। এই লড়াই শেষে নিরাপদেই দেশে ফিরে যেতে পারবে লঙ্কানরা। আর পাকিস্তানও জোর গলায় বলতে পারবে, দেখো! পাকিস্তান কত নিরাপদ। এ দেশে ক্রিকেট খেলতে আর কারো চিন্তা হওয়ার কারণ থাকতে পারে না।

প্রথম দুই ম্যাচ হারের পর পাকিস্তান আজ জয়ের জন্যই নেমেছে মাঠে। যদিও প্রথমে বোলিং করতে হয়েছে টস হেরে। টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই পাকিস্তানি দুর্ধর্ষ বোলিংয়ের মুখে পড়তে হয় লঙ্কানদের। ৩০ রানের মধ্যেই হারাতে হয় প্রথমসারির তিন ব্যাটসম্যানকে।

গুনাথিলাকা ৮, সামারাভিক্রমা ১২ এবং ভানুকা রাজাপাকষে আউট হন ৩ রান করে। ৫৮ রানের মাথায় ১৩ রান করে রানআউট হয়ে ফিরে যান অ্যাঞ্জেলো পেরেরা। ওশাদা ফার্নান্দোই শুধুমাত্র পাকিস্তানি বোলারদের সামনে বুক চিতিয়ে লড়াই করতে পারলেন। ৪৮ বলে তিনি অপরাজিত থাকেন ৭৮ রানে। ৮টি বাউন্ডারির সঙ্গে তিনি মারেন ৩টি ছক্কার মার।

দাসুন সানাকা ১২, মাধুশঙ্কা ১ এবং ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা আউট হন ৬ রান করে। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১৪৭ রান করতে সক্ষম হয় লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। মোহাম্মদ আমির নেন ৩ উইকেট। ইমাদ ওয়াসিম এবং ওয়াহাব রিয়াজ নেন ১টি করে উইকেট।

আইএইচএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]