ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি হচ্ছেন গাঙ্গুলি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৯:১৪ এএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৯

নতুন মোড় নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) নির্বাচন। নাটকীয়ভাবে বোর্ডের নতুন সভাপতি হতে যাচ্ছেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি। সভাপতি পদে আর কোনো আবেদন না পড়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হতে যাচ্ছেন তিনি। আর তা হলে আগামী ১০ মাসের জন্য ভারতের ক্রিকেটের দায়িত্ব দেয়া হবে তাকে।

আজ (সোমবার) বিসিসিআইয়ের নির্বাচনের প্রধান পাঁচ পদে (সভাপতি, সহ-সভাপতি, সেক্রেটারি, জয়েন্ট সেক্রেটারি এবং অর্থ সম্পাদক) মনোনয়ন জমা দেয়ার শেষ দিন। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সভাপতির পদে জমা পড়েনি কারও নাম। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের শেষ দিন অর্থাৎ আজই সকল নিয়মকানুন মেনে বোর্ডের মনোনয়ন জমা দেবেন গাঙ্গুলি।

শোনা যাচ্ছিলো ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি হবেন ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান, অভিজ্ঞ সংগঠক এবং কর্ণাটক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ও বিসিসিআইয়ের হয়ে দীর্ঘদিন বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করা ব্রিজেশ প্যাটেল। তবে সমঝোতার ভিত্তিতে তাকে আইপিএলের নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হবে এবার।

ফলে গাঙ্গুলি ব্যতীত আর কারও মনোনয়নই জমা পড়ার সম্ভাবনা নেই বোর্ডের সভাপতি পদে। যেহেতু একের অধিক প্রার্থী না থাকলে কোনো নির্বাচন সম্ভব নয়, তাই আগামী ২৩ অক্টোবর হতে যাওয়া নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বোর্ডের নতুন সভাপতি হবেন গাঙ্গুলি।

এদিকে ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গুজরাট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এবং দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর ছেলে জয় শাহ হতে যাচ্ছেন বোর্ডের নতুন সেক্রেটারি। এছাড়া নতুন কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দেখা যাবে বিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি অনুরাগ ঠাকুরের ছোট ভাই অরুণ ধুমালকে।

সৌরভ গাঙ্গুলি এবং জয় শাহ- দুজনই প্রাথমিকভাবে দায়িত্ব পাবেন দশ মাসের জন্য। এরপর সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে পরবর্তীতে আরও তিন বছরের জন্য একই পদে বহাল রাখা হবে তাদের।

বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সংস্কারে সুপ্রিম কোর্ট গঠিত আরএম লোধা কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে দীর্ঘদিন ধরে বিসিসিআই পরিচালিত হচ্ছিল সিওএ (কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরস) দিয়ে। যার সভাপতি সিকে খান্না এবং প্রধান নির্বাহী হচ্ছেন রাহুল জহুরি। এই অবস্থার অবসান ঘটানোর জন্যই অনুষ্ঠিত হবে ২৩ অক্টোবরের নির্বাচন।

এসএএস/পিআর