বিসিসিআই সভাপতি হিসেবে প্রথম যে কাজটা করতে চান সৌরভ

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৩৪ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৯

আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব হাতে পাননি। তবে, বিসিসিআইর আগামী প্রেসিডেন্ট যে তিনি নির্বাচিত হয়ে গেছেন, এটা নিশ্চিত। ২৩ অক্টোবর নির্বাচনের দিন। ওইদিনই হয়তো আনুষ্ঠানিকভাবে বিসিবিআইয়ের নির্বাচন কমিশন থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সৌরভ গাঙ্গুলিকে সভাপতি হিসেবে ঘোষণা করা হবে।

তবে তার আগেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সর্বোচ্চ ব্যক্তি হিসেবে নিজের দায়িত্বের কথা চিন্তা করতে শুরু করে দিয়েছেন সৌরভ গাঙ্গুলি। সোমবার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েই তিনি মিডিয়ার সামনে কথা বললেন। জানালেন নিজস্ব কিছু পরিকল্পনার কথা। আগামীদিনে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে কিভাবে চালাতে চান, সে কথাও জানিয়ে দিলেন তিনি।

মিডিয়ার সামনে কথা বলতে গিয়ে সৌরভের কাছে প্রথম কোন কাজটা অগ্রাধিকার পাবে- সে বিষয়ে স্পষ্ট করে দিয়েছেন। জানিয়ে দিলেন, ঘরোয়া ক্রিকেটারদের আর্থিক সংগতির দিকে নজর দেওয়াই হবে তার প্রথম কাজ। তিনি নিজে ছিলেন ক্রিকেটার, সে কারণে ক্রিকেটারদের স্বার্থটাই হয়তো দেখবেন তিনি সবচেয়ে বেশি।

ভারতীয় ক্রিকেটে ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকের মধ্যে বিস্তর ফারাক। ঘরোয় ক্রিকেটে পেশাদারিত্ব আনতে হলে ক্রিকেটারদের পর্যাপ্ত পারিশ্রমিকের দিকে নজর দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন সৌরভ। তিন বছর আগেই এ প্রসঙ্গে কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর্সের নজর কেড়েছিলেন তিনি। যদিও তাতে বিন্দুমাত্র কর্ণপাত করেননি বিসিসিআইর বর্তমান প্রশাসনিক কমিটি। বোর্ড সভাপতি হওয়ার পর সে কাজটাই প্রথমে করতে চান সৌরভ।

সৌরভ বলেন, ‘কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সবার সঙ্গে অবশ্যই আলোচনা করে নেব। তবে আমার প্রথম কাজ হবে ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটারদের দিকে নজর দেওয়া। এ বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে সিওএ’কে অনুরোধ করে এসেছি। তারা বিষয়টায় কান দেননি। আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর ঘরোয়া ক্রিকেটারদের আর্থিক দিকটাতেই প্রথমে নজর দিতে চাই।’

বিসিসিআইর হারানো সম্মান পুনরূদ্ধার করাটাই হবে তার প্রথম কাজ। এ নিয়ে সৌরভ বলেন, ‘প্রতিদ্বন্দিতায় অথবা বিনা প্রতিদ্বন্দিতায়, যেভাবেই হোক না কেন- বোর্ড সভাপতি হয়ে গত কয়েক বছর ধরে বিসিসিআই’র হারানো সম্মানটা পুনরুদ্ধার করতে চাই। বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ক্রিকেট বোর্ডের ভাবমূর্তি ফিরিয়ে আনার চ্যালেঞ্জ নিতে চাই।’

আইএইচএস/এমকেএইচ