লেগ স্পিনার নিলো না ঢাকা-রংপুর, দুই কোচকে বিসিবিতে তলব

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫০ পিএম, ১৭ অক্টোবর ২০১৯

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলে লেগ স্পিনারের হা হুতোশ অনেকদিনের। সারা বিশ্বে যেখানে চলছে লেগ স্পিনারদের রাজত্ব, সেখানে বাংলাদেশ দলে নেই কোনো নিয়মিত রিস্ট স্পিনার। যে কারণে বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে অধিক পরিচিত আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকেও খেলাতে হয়েছে লেগ স্পিনারের অভাব দূর করতে।

দলের এমন অবস্থা কাটানোর জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। আনুষ্ঠানিকভাবে নিয়ম করে দেয়া হয়েছে আসন্ন বিপিএলে প্রতি দলেই থাকতে হবে একজন করে লেগ স্পিনার। একই কথা বলা হয়েছিল চলতি জাতীয় ক্রিকেট লিগের জন্যও। নিয়ম না করা হলেও, সবগুলো দলকেই বলা হয়েছিল একাদশে যেন অন্তত একজন হলেও রিস্ট স্পিনার নেয়া হয়।

কিন্তু লিগের দুই রাউন্ডেও কোনো লেগ স্পিনার খেলায়নি ঢাকা বিভাগ। এমনকি আজ শুরু হওয়া দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে রংপুর বিভাগের একাদশেও নেই কোনো লেগ স্পিনার। তবে কবজির মোচড়ে বল ঘোরাতে পারা লেগ স্পিনিং অলরাউন্ডার তানবির হায়দার আছেন রংপুরে। কিন্তু ঢাকার দুই স্পিনার হলেন নাজমুল ইসলাম ও শুভাগত হোম।

এ দুই দলই চট্টগ্রামে মুখোমুখি হয়েছে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে। যেখানে চাইলেই ঢাকা ও রংপুর দলে রাখতে পারত বর্তমান সময়ের অন্যতম সম্ভাবনাময় দুই লেগ স্পিনারকে। কেননা ঢাকার স্কোয়াডে আছেন জুবায়ের হোসেন লিখন এবং রংপুরে রিশাদ হোসেন। তবু দলে সুযোগ মেলেনি এ দুই লেগ স্পিনারের।

ঢাকা ও রংপুরের একাদশে লেগ স্পিনার না থাকার বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি বিসিবি। যা আজ (বৃহস্পতিবার) খোলামেলাভাবেই প্রকাশ করেছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হোসেন পাপন। কেনো নেয়া হয়নি কোনো লেগ স্পিনার, এ বিষয়ে যথাযথ ব্যাখ্যা চাইতে ম্যাচের প্রথম দিনই বিসিবিতে তলব করা হয়েছে ঢাকা ও রংপুরের দুই কোচ জাহাঙ্গীর আলম এবং শ্যামল ও রাজনকে।

উল্লেখ্য, জাতীয় লিগে ঢাকা বিভাগের কোচের দায়িত্ব পালন করছেন জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার, ১৯৯৪ আইসিসি ট্রফিতে বাংলাদেশের দলের এক নম্বর ওপেনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করা জাহাঙ্গীর আলম। অন্যদিকে রংপুর বিভাগের কোচ হলেন মাসুদ পারভেজ। 

দুপুরে বোর্ড পরিচালকদের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিক এক বৈঠকের পর সংবাদ মাধ্যমে পাপন বলেন, ‘এই যে জাতীয় লিগ হচ্ছে। এত কিছু বলার পরও, লেগ স্পিনার নিয়ে এত কথা বলছি, অথচ রিশাদকে খেলানো হয়নি এখনও। লিখনকেও (জুবায়ের হোসেন) খেলানো হয়নি। আমরা এত কিছু বলার পরও যদি সেরা একাদশে ওদের না নামায়, তাহলে কী করণীয়? আমরা নিশ্চিত ছিলাম আজকে খেলাবে, কিন্তু নামায়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা আপাতত যেটা করেছি, জাতীয় লিগে কেন লেগ স্পিনার খেলায়নি, সেটি জানতে আজকেই দুই কোচকে তলব করা হয়েছে। অবশ্যই উত্তর দিতে হবে তাদেরকে। বলার পরও কেন খেলানো হয়নি! ঢাকা ও রংপুরের কোচকে ডাকা হয়েছে। লেগ স্পিনারদের তো খেলাতে হবে! না খেলালে ওরা উঠে আসবে কিভাবে?’

এসএএস/জেআইএম