নারীর ফ্ল্যাট দখল, ভারতীয় ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে মামলা

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:৫৬ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯

প্রায় দুই যুগ আগে ১৯৯৫ সালে নিজেরা থাকার জন্যই কিনেছিলেন একটি ফ্ল্যাট। প্রায় ১১ বছর সেখানে থেকে ২০০৬ সালে পাড়ি জমান ইংল্যান্ডের লন্ডনে। বছরখানেক আগে দেশে ফিরে দেখলেন তার সেই ফ্ল্যাট দখল করে বসে আছেন দেশের জাতীয় দলের এক তারকা ক্রিকেটার।

খানিক অবিশ্বাস্য ঠেকলেও, এমন অভিযোগই উঠেছে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার মনোজ প্রভাকরের বিরুদ্ধে। তাও কি না দিল্লীতে যেই বাড়িতে থাকেন তিনি, সেই বাড়িরই ওপরের ফ্ল্যাট দখলের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার আসামি হয়েছেন প্রভাকর।

মামলার বাদী লন্ডন প্রবাসী সন্ধ্যা শর্মা পণ্ডিত। তাও শুধু মনোজ প্রভাকরের একার বিরুদ্ধে হয়নি মামলা। তার স্ত্রী, ছেলে এবং দুই বন্ধুর নামে একই মামলা ঠুকে দিয়েছেন সন্ধ্যা পন্ডিত।

নিজের অভিযোগপত্রে মামলার বাদী সন্ধ্যা পন্ডিত উল্লেখ করেছেন দক্ষিণ দিল্লীতে সর্বপ্রিয় বিহারের তৃতীয় তলায় একটি ফ্ল্যাটের মালিক তিনি। একই বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলায় পরিবার নিয়ে থাকেন মনোজ। কিন্তু গত এক বছর ধরে তৃতীয় তলার ফ্ল্যাটে নিজের বন্ধুর পরিবারকে থাকতে দিয়েছেন মনোজ।

অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ করা হয় যে ১৯৯৫ সালে সন্ধ্যা পণ্ডিতের স্বামী লক্ষী চাঁদ পন্ডিত ফ্ল্যাটটি কেনেন। পরে ২০০৬ সালে তারা চলে যান লন্ডনে। তখন তাদের কিছু আত্মীয় এসে ওঠে এই ফ্ল্যাটে। কিন্তু গতবছর আত্মীয়রাও চলে যাওয়ার পর থেকে খালিই পড়ে ছিল ফ্ল্যাটটি। আর সেখানেই মনোজ জবরদখল করে থাকতে দিয়েছেন নিজের বন্ধুকে।

পুলিশের দেয়া তথ্য অনুযায়ী সন্ধ্যা পন্ডিত জানিয়েছেন গত সেপ্টেম্বরে তার আত্মীয়রা পুনরায় ফ্ল্যাটে এসে থাকতে চাইলে, ভেতরে অবস্থানকারীরা তাদের ঢুকতে দেয়নি। এমনকি ফ্ল্যাটও খালি করে দেয়নি। উল্টো ভুয়া কাগজ বানিয়ে এই ফ্ল্যাট দখল করেছেন মনোজ প্রভাকর।

প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছে পুলিশ। জানিয়েছে মনোজ গয়াল নামক এক প্রোপার্টি ডিলারের মাধ্যমেই নকল কাগজপত্র বানিয়ে ফ্ল্যাট দখল করেছেন মনোজ প্রভাকর। উল্লেখ্য, সন্ধ্যা পন্ডিতের করা মামলায় আসামি করা হয়েছে মনোজ গয়ালকেও।

তবে এই অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করেছেন ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার মনোজ প্রভাকর। তিনি বলেন, ‘আমি এই অভিযোগের ব্যাপারে কিছু জানি না। আমি যদি দোষী হতাম, তা হলে পুলিশের তরফে কেউ না কেউ ফোন করত। কিন্তু তা ঘটেনি। একমাত্র মিডিয়ার মুখেই এই মামলার কথা শুনছি। আমার নিজস্ব ব্যবসা রয়েছে। ক্রিকেটার হিসেবেও খুব খারাপ ছিলাম না। এই ধরনের কোনও কিছু করার দরকারই নেই আমার।’

আত্মপক্ষ সমর্থনে তিনি আরও বলেন, ‘কেউ যদি আমার নামে অভিযোগ করে, তার মানেই আমি দোষী হয়ে গেলাম না। কে বলতে পারে আমার খ্যাতির কারণেই হয়ত ওরা এই অভিযোগ করেছে। দ্বিতীয় তলার ফ্ল্যাটে গত ২৩ বছর ধরে থাকি আমি। কিন্তু কখনই ওই মহিলাকে দেখেনি। ওই মহিলা সম্পর্কে কিছুই জানি না। তিনতলার ফ্ল্যাটে কে থাকেন তা আমি জানি না।’

উল্লেখ্য, ভারতের হয়ে ৩৯ টেস্ট ও ১৩০টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন প্রভাকর। টেস্টে ৩২.৬৫ গড়ে করেছেন ১৬০০ রান, নিয়েছেন ৯৬টি উইকেট। একদিনের ক্রিকেটে ২৪.১২ গড়ে করেছেন ১৮৫৮ রান, উইকেট নিয়েছেন ১৫৭টি। ১৯৮৪ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় তাঁর। ১৯৯৬ সালের মার্চে দেশের হয়ে শেষ ম্যাচ খেলেন তিনি।

এসএএস/পিআর