ব্যথা নিয়েই ডাবল সেঞ্চুরি সাইফের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৪১ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯

আগের দিনই সেঞ্চুরি পেয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু ব্যথা পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয় সাইফ হাসানকে। ১২০ রানে ছিলেন অপরাজিত। দ্বিতীয় দিনে আবারও মাঠে নেমে ডাবল সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। এবারও তাকে আউট করতে পারেননি রংপুর বিভাগের বোলাররা।

চট্টগ্রামে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে জাতীয় লিগের দ্বিতীয় স্তরের ম্যাচে খেলছে ঢাকা বিভাগ আর রংপুর বিভাগ। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেটে ৩১৪ রানে দিন শেষ করেছিল ঢাকা।

দ্বিতীয় দিনে তারা ৮ উইকেটে ৫৫৬ রানের হিমালয়সম সংগ্রহ গড়ে ইনিংস ঘোষণা করেছে। আর এই পুঁজির মূল কারিগর সাইফ হাসান। শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে আনঅফিসিয়াল ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে সাইফ খেলেছিলেন ১১৭ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস।

পাঁচদিনের ব্যবধানে জাতীয় লিগে খেলতে নেমে হার না মানা ২২০ রানের এক ইনিংস খেললেন সাইফ। বোঝাই যাচ্ছে, ব্যাটে এখন তার বসন্ত চলছে। ৪৮৮ মিনিটের মহাকাব্যিক এই ইনিংসটিতে সাইফ বল মোকাবেলা করেছেন ৩২৯টি, ১৯ বাউন্ডারির সঙ্গে হাঁকিয়েছেন ৪টি ছক্কাও।

শেষদিকে নেমে অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরীও খেলেন ৬১ রানের এক ইনিংস। এর আগে ওপেনিংয়ে রনি তালুকদার ৬৫ আর চার নাম্বারে ব্যাটসম্যান রকিবুল হাসান করেন ৫৭ রান।

রংপুর বিভাগের পক্ষে ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন সোহরাওয়ার্দি শুভ আর সঞ্জিত সাহা।

জবাব দিতে নেমে কিছুটা বিপদেই আছে রংপুর। ওপেনার লিটন দাস একটা প্রান্ত ধরে হাফসেঞ্চুরি তুলে নিলেও আরেক ওপেনার হামিদুল ইসলাম (৯) আর তিনে নামা মাহমুদুল হাসান (০) দলকে ভরসা দিতে পারেননি। দুটি উইকেটই নিয়েছেন সালাউদ্দিন শাকিল।

২ উইকেটে ৭১ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করবে রংপুর। লিটন দাস ৫১ আর নাইম ইসলাম ৮ রানে অপরাজিত আছেন।

এমএমআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]